আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:১৭

প্রধানমন্ত্রীর দিন শেষ হয়ে আসছে: রিজভী

অনলাইন ডেস্ক
প্রধানমন্ত্রীর দিন শেষ হয়ে আসছে: রিজভী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশ ছেড়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী। তার দাবি, বাংলাদেশকে লুটপাট করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও তার স্বজনরা। এ কারণে তিনি নিস্তার পাবেন না। শুক্রবার রাজধানীতে এক মানববন্ধনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ কথা বলেন। বিএনপির গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সেলিম ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার করে তার মুক্তির দাবিতে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

‘প্রধানমন্ত্রী আপনি আর বেশিদিন নেই’- মন্তব্য করে বিএনপি নেতা বলেন, ‘আপনি আর আপনার স্বজনরা জনগণকে লুটপাট করেছেন। জনগণ এখন তা ধরে ধরে আদায় করবে।’ ‘যদি নৈরাজ্য তৈরি করে দেশ চালান, জনগণ পাল্টা নৈরাজ্য তৈরি করবে। জনগণের হাত থেকে আপনি নিস্তার পাবেন না। আপনাকেও দেশ ছাড়ার প্রস্তুতি নিতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় স্বজনদের পকেট ভারী করতেই বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়েছে বলেও দাবি করেন রিজভী। যদিও বিদ্যুতের বাড়তি দাম কীভাবে কারও পকেটে যাবে, সেটার ব্যাখ্যা দেননি তিনি। বৃহস্পতিবার এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন ইউনিটপ্রতি বিদ্যুতের দাম গড়ে ৩৫ পয়সা করে বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর এ নিয়ে আটবার বাড়ানো হলো দাম।

বিদ্যুতের এই বাড়তি দাম কার্যকর হবে ডিসেম্বর থেকে। আর সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আগামী ৩০ নভেম্বর হরতাল ডেকেছে বামপন্থী কয়েকটি দল। বিএনপি এ নিয়ে এখন অবধি আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া দেয়নি। তবে মানববন্ধনে রিজভী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনি আবারও বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করছেন গরিব- দুঃখী মানুষের পকেট কেটে আপনার আত্মীয় স্বজনের পকেট ভারী করার জন্য।’

‘আপনি ব্যাংক, শেয়ারবাজার খেয়েছেন এখন মানুষের শেষ সম্বলটুকু কেড়ে নিতে চান। আপনার আত্মার শান্তির জন্য দাম বৃদ্ধি করছেন।’ পৃথিবীর অন্য দেশেও গুম হয়-জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্য বাংলাদেশে গুমের পেছনে গুমের ঘটনায় সরকার প্রধানের দায় স্বীকার হিসেবে দেখার কথাও জানান রিজভী। বলেন, ‘গতকাল (বৃহস্পতিবার) সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথিবীর অন্য দেশেও গুম হয় মন্তব্য করে নিজেই গুম করেন বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। এই বক্তব্যের মাধ্যমে তিনি গুমকে স্বীকৃতি দিলেন। গুমের দায় স্বীকার করে নিলেন। তিনি রাষ্ট্রের পক্ষে গুম করেন।’

‘শেখ হাসিনা সংসদে বলেছেন, গুম হয়ে আবার ফিরেও আসে। তার মানে শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে গেলেই গুম করা হয়। তার নির্দেশে গুম হয়। স্বার্থের হিসেব মিললে ফিরে আসার সুযোগ দেয় আর স্বার্থের হিসাব না মিললে চিরতরে গুম হয়ে যায়, যেমন ইলিয়াস আলী।’ বিএনপি প্রতিশোধে বিশ্বাসী নয় মন্তব্য করে রিজভী বলেন, ‘আইনের অধীনে বিচার হবে। কিন্তু আপনি গুম করেছেন, গুমের দায়ও স্বীকার করেছেন। তাহলে এই নৈরাজ্যের জবাব জনগণ আপনাকে দেবে।’

‘প্রধানমন্ত্রী, আর এই দু:শাসন চলবে না। আর করতে দেয়া হবে না’ মন্তব্য করে বিএনপি নেতা বলেন, ‘আপনার দিন শেষ হয়ে আসছে। যদি নৈরাজ্য তৈরি করে দেশ চালান তাহলে জনগণও পাল্টা নৈরাজ্য তৈরি করবে।’ মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষক, কর্মচারী ঐক্যজোটের অতিরিক্ত মহাসচিব জাকির হোসেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে