আপডেট : ৬ মে, ২০১৬ ২২:৩০

আইনমন্ত্রীর বক্তব্য আদালত অবমাননা নয় কি?

বিডিটাইমস ডেস্ক
আইনমন্ত্রীর বক্তব্য আদালত অবমাননা নয় কি?

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে হাইকোর্টের দেয়া রায়কে ‘সংবিধান পরিপন্থি’ বলে সংসদে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক যে বক্তব্য দিয়েছেন তা আদালত অবমাননা কি না, সেই বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ প্রশ্ন তোলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, একটি রিট আবেদনে দেয়া রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী, বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের বিশেষ বেঞ্চ সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণা করে।

রায়ে আদালত বলেন, ‘সংসদের মাধ্যমে বিচারকগণের অপসারণ প্রক্রিয়া ইতিহাসের একটি দুর্ঘটনা।’

অনুষ্ঠানে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, হাইকোর্টের রায় সংবিধান পরিপন্থি। এতে আদালত অবমামননা হচ্ছে না? আমি তো মনে করি, আদালতের এটি বিবেচনা করা দরকার।’

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘আদালতের রায়কে যখন বলা হয়- সংবিধান পরিপন্থি, এর চেয়ে বড় আর কী বলা যাবে! তাই এটি আদালতের বিবেচনায় নেয়া উচিত।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘এরশাদের সময়ে আদালত সংবিধানের অষ্টম সংশোধনী বাতিল করে রায় দিয়েছিলেন। তখন এরশাদের বিরুদ্ধে আন্দোলনে থাকা বিরোধী রাজনৈতিক জোট (আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ অন্য রাজনৈতিক দল) দাবি করে বলেছিল, সংসদে পাস করা সরকারের কোনো আইন আদালত যখন বাতিল করে দেয়, তখন ওই সরকারের আর ক্ষমতায় থাকার অধিকার থাকে না। আওয়ামী লীগও তখন এতে একমত ছিল।’

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘আমাদের সেই সময়ের (অষ্টম সংশোধনী বাতিলের সময়) বক্তব্য যদি সঠিক হয়, তাহলে এখন আদালত ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেয়ার পর এই সরকারের কী হবে? পার্লামেন্টে পাস করা আইন (সংশোধনী) আদালত বাতিল করে দেয়ায় তাদেরও (আওয়ামী লীগ) তো আর ক্ষমতায় থাকার অধিকার থাকে না।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে