আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:২৬

মনোনয়ন বিক্রির অভিযোগে আ’লীগ সভাপতিকে তুলে নিয়ে গেলো নেতাকর্মীরা

বিডিটাইমস ডেস্ক
মনোনয়ন বিক্রির অভিযোগে আ’লীগ সভাপতিকে তুলে নিয়ে গেলো নেতাকর্মীরা

নির্বাচিত দলীয় প্রার্থীর মনোনয়ন অন্য প্রার্থীকে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতিকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গেছে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। এসময় তারা বাড়ি ঘর ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ করে।

শনিবার কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের তুলাগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি করিম সরকার জানান, দলীয় প্রার্থী নির্বাচনে সুলতানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রত্যেক ওয়ার্ডের সভাপতি ও সম্পাদকদের মতামত ও ভোট নেয়া হয়। এতে ১৮টি ভোটের মধ্যে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান সরকারকে শতভাগ ভোট দেয় নেতৃবৃন্দ।

কিন্তু ১৯ ফেব্রুয়ারি বিকেলে জানতে পারি আমাদের তৃণমূলের সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে মনগড়াভাবে সফিক নামের এক ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ। ওই ঘটনায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহজাহান সরকার কারো প্ররোচনায় তার মনোনয়ন বিক্রি করে দিয়েছেন বলে ধারণা জন্মে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মধ্যে।
সেই ক্ষোভে শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিক্ষুদ্ধ নেতা-কর্মীরা তুলাগাঁও গ্রামে শাহজাহান সরকারের বাড়ি ঘেরাও করে ভাঙচুর ও অগ্নিংযোগ করে। এক পর্যায়ে তারা শাহজাহান সরকারকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে পাশ্ববর্তী স্কুলের একটি কক্ষে আটকে রেখে বিক্ষোভ শুরু করে।

কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ যুগ্ম আহবায়ক ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা মামুনুর রশিদ সরকার জানান, ঘটনার সময় স্থানীয় এমপি মোবাইল ফোনে মনোনয়ন বিক্রির বিষয়টি মিথ্যা এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে হয়েছে বলে আমাদের জানান। এছাড়া পরিস্থিতি শান্ত করতে শাহজাহান সরকারকে নির্বাচন অংশ নিতে পরামর্শ দেন। পরে উত্তেজিত জনতা মুক্তি দেয় শাহজাহান সরকারকে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে