আপডেট : ২৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৫:২৫

যুদ্ধে যাদের ভূমিকা নেই, তাদের জাতির পিতা বানানো যায় না

বিডিটাইমস ডেস্ক
যুদ্ধে যাদের ভূমিকা নেই, তাদের জাতির পিতা বানানো যায় না

শেখ মুজিবুর রহমান মুক্তিযুদ্ধ দেখেননি, কিভাবে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে সেটাও তিনি জানেন না, যুদ্ধের কথা তিনি শুনেছেন। যুদ্ধে তার কোন প্রতক্ষ্য ভুমিকা নেই। মুক্তিযুদ্ধে যাদের ভূমিকা নেই তাদেরকে জাতির পিতা বা স্বাধীনতার ঘোষক বানাতে চাইলেই বানানো যায় না।

রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি মিলনায়তনে ডক্টর এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) আয়োজিত চিকিৎসক সমাবেশে বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে এসব কথা বলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮০তম জন্মবার্ষিকী, গণতন্ত্র পুন:রুদ্ধার- সাংবিধানিক অধিকার সুরক্ষা ও জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এবি এম খায়রুল হক চিকিৎসার টাকা ও আইন কমিশনে চাকুরীর লোভে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আইন বাতিল করেছেন। এই অপরাধের জন্য তাকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনা উচিত।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদদের সংখ্যা উল্লেখ্য করেন নাই। তিনি বলেছেন শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বির্তক আছে।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক তাজউদ্দীন আহেমেদ বলেছিলেন, ১০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। তার এ বক্তব্যর জন্য খালেদা জিয়ার আগে তাজউদ্দীন আহমদের নামে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হওয়া উচিত ছিল। পরে আরো অনেকেই শহীদদের বিভিন্ন সংখ্যার কথা বলেছেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নামে হত্যা মামলা হওয়া উচিত মন্তব্য করে রিজভী বলেন, শেখ হাসিনা বলেছিলেন আমার দলের একজন মারা গেলে অন্য দলের দশজন মারা হবে। তার এ বক্তব্য প্রকাশ্য হত্যার হুমকি, এ জন্য তাকে আসামী করে হত্যা মামলা করা উচিত।

আয়োজক সংগঠনের সহ সভাপতি অধ্যাপক ডা. রফিকুল কবির লাবুর সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রো-ভিসি আ ফ ম ইউসূফ হায়দার, ড্যাবের মহাসচিব ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন প্রমুখ।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এমএইচ

 

উপরে