আপডেট : ১৯ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৯:৪৮

তোপের মুখে এরশাদ, সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে জাপা সাংসদরা

বিডিটাইমস ডেস্ক
তোপের মুখে এরশাদ, সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে জাপা সাংসদরা

জাতীয় পার্টির (জাপা)সংসদীয় দলের বৈঠকে সাংসদদের তোপের মুখে পড়লেন খোদ দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মাদ এরশাদ।এসময় দল ও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদের ব্যাপারে চেয়ারম্যানের নেয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেন সংসদীয় দলের সদস্যরা।

সংসদ ভবনে মঙ্গলবার দুপুর সোয়া ৩টায় বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এরশাদ তোপের মুখে পড়েন।

জানা গেছে, জাপা সংসদীয় দলের বৈঠক শুরুর ১৫ মিনিট পর সাড়ে ৩টায় বৈঠকে যোগ দেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। কিন্তু বৈঠকে সিনিয়র নেতারা এরশাদের কাছে কৈফিয়ত চেয়ে বসেন কেন জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান আর রুহুল আমিন হাওলাদারকে কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব করা হলো? সর্বশেষ কেন জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুকে সরিয়ে দিয়ে কেন হাওলাদারকে মহাসচিব করা হলো?

সিনিয়র নেতাদের উত্তেজিত ভঙ্গিতে চাওয়া প্রশ্নের জবাব দিতে না পেরে ৪৫ মিনিট পর বিকেল সোয়া ৪টায় বেরিয়ে তার কার্যালয়ে যান এরশাদ ও রুহুল আমিন হাওলাদার। যাওয়ার সময় তাদের মুখ মলিন দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।
 

এরশাদ বেরিয়ে যাওয়ার পরও প্রায় ৪০ মিনিট স্থায়ী হয় জাতীয় পার্টির পার্লামেন্টারি পার্টির বৈঠক। বৈঠকে এরশাদের সব সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

তিনি আরও জানিয়েছেন, পার্লামেন্টারি পার্টির বৈঠকে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিরসনের জন্য সংসদীয় দলের নেতা রওশন এরশাদকে যৌথ সভা ডাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে। এবং সেখানে বসে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়ার অনুরোধ জানালে তিনি সায় দিয়েছেন।

তবে এরশাদ বৈঠক থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি যে সিদ্ধান্ত দিয়েছি, যে কথা বলেছি, সেটায় অটল থাকবো। জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অটল থাকবো’।

রোববার (১৭ জানুয়ারি) রংপুরে সংবাদ সম্মেলনে ছোট ভাই জিএম কাদেরকে পার্টির কো-চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দেন এরশাদ। একই সঙ্গে দলের জাতীয় কাউন্সিলের জন্য জিএম কাদেরকে আহ্বায়ক ও রুহুল আমিন হাওলাদারকে সদস্য সচিব করে প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা করেন।

এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেন দলের সিনিয়র নেতারা। পরদিন সোমবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেলে প্রেসিডিয়াম ও পার্লামেন্টারি পার্টির বিশেষ বৈঠকে রওশন এরশাদকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর থেকে ফিরে জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুকে সরিয়ে দিয়ে এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারকে মহাসচিব নিযুক্ত করেন এরশাদ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে