আপডেট : ১৯ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৪:০২

এ কেমন নিষ্ঠুরতা! বিড়ালছানাগুলোর কী অপরাধ ছিল ?

অনলাইন ডেস্ক
এ কেমন নিষ্ঠুরতা! বিড়ালছানাগুলোর কী অপরাধ ছিল ?

আমার অপরাধ ছিল, শাস্তি হয়েছে। আমার রুম লুটপাট করা হয়েছে, সেটাও মেনে নিলাম। কিন্তু আমার পোষা ছোট্ট বিড়ালছানাগুলো কী অপরাধ করেছিল। তাদের মা ছিল না। তাদের কেন জবাই করে রাখলি?

আক্ষেপ করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে এমনি আবেগঘণ এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সদ্য বহিষ্কৃত সভাপতি মিজানুর রহমান রানা।

তার অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলে যাওয়ার পর প্রতিপক্ষরা তাকে না পেয়ে তার পোষা বিড়ালের বাচ্চাগুলোকে জবাই করে হত্যা করেছে। 

ঘটনার বিবরণে জানাযায়, সদ্য অব্যাহতিপ্রাপ্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান রানা তার বঙ্গবন্ধু হলের রুমে কয়েকটি বিড়ালের বাচ্চা পুষতেন। মা হারা এই বিড়াল ছানাদের তিনি নিয়মিত দুধ খাওয়াতেন। তাদের দেখাশোনা করতেন।

গত ১৬ জানুয়ারি সভাপতির পদ হারাবার পর তিনি নিজের সমর্থকদের সাথে নিয়ে ওইদিন রাতেই বিশ্ববিদ্যালয় ত্যাগ করেন। কিন্তু যাবার সময় কর্মীদের সাথে নিয়ে গেলেও বিড়ালের বাচ্চাগুলোকে সাথে নিতে পারেননি। বাচ্চাগুলো তার রুমের সামনেই ছিল।

রানার অনুপস্থিতিতে তার নিজ দলের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ প্রতিশোধ নিতে তার রুমে হামলা চালায় এবং গতকাল রানাকে না পেয়ে তার পরম মমতায় বেড়ে ওঠা বিড়ালের বাচ্চাগুলোকে জবাই করে (গলা কেটে) মেরে ফেলে।

এর আগে, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গত ১৬ জানুয়ারি রাত ৯টায় মিজানুর রহমান রানাকে বহিষ্কারের ঘোষণা দেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে