আপডেট : ১১ নভেম্বর, ২০১৮ ১১:৩০

নিজ ভাইয়ের গলা কেটে রক্তমাখা দাসহ থানায় আত্মসমর্পণ

অনলাইন ডেস্ক
নিজ ভাইয়ের গলা কেটে রক্তমাখা দাসহ থানায় আত্মসমর্পণ

সাভারের আশুলিয়ায় এক শতাংশ জমির জন্য ঘুমন্ত বড় ভাইকে দা দিয়ে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যার পর রক্তমাখা শরীরে থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন আপন ছোট ভাই।

শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে আশুলিয়ায় পলাশবাড়ীর কাঁইচাবাড়ী এলাকায় নিজ বাড়িতে জাহেদ আলীর হাতে খুন হন তার আপন বড় ভাই আবু তাহের। তাদের পিতার নাম মৃত ফজর আলী। নিহত আবু তাহের (৪০) ও ঘাতক জাহেদ আলীসহ (২৬) তারা সাত ভাই ও এক বোন।

নিহতের বোন ও অপর ভাইয়েরা জানান, বড় ভাই আবু তাহের তার পৈতৃক এক শতাংশ জমি বিক্রয় করে বিদেশ যেতে চাইছিলেন। এ নিয়ে অনেক দিন ধরেই ছোট ভাই জাহেদ আলীর সাথে বিরোধ চলছিল বড় ভাই আবু তাহেরের।

তিনদিন আগে তাহের এক প্রতিবেশীর কাছে তার পৈতৃক এক শতাংশ জমি বিক্রয়ের জন্য ১ লাখ টাকা বায়না নেন। সেই টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা তিনি খরচ করেন। বাকী ৭০ হাজার টাকা মায়ের কাছে জমা রাখেন।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে বড় ভাই আবু তাহের তার কক্ষে ঘুমিয়ে পড়লে ছোট ভাই জাহেদ তার ঘরে ঢুকে দা দিয়ে তাকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেন। পরে রক্তমাখা দা ও শরীরে তিনি থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে। খবর পেয়ে পুলিশ তাহেরের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার ওসি (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ জানান, ‘রাতে তিনি তার অফিস কক্ষে বসে ছিলেন। এ সময় হঠাৎ তার কক্ষে রক্তমাখা শরীরে দা হাতে জাহেদ আলী নামে এক ব্যক্তি এসে তাকে গ্রেপ্তার করতে বলেন। নিজের ভাইকে হত্যার দায় স্বীকার করেন তিনি। পরে তাকে আটকের পর খোঁজ নিয়ে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। তবে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আবু তাহের ছোট ভাইয়ের হাতে খুন হয়েছেন কি না সে ব্যাপারে তদন্ত করে জানা যাবে।’

এ ঘটনায় আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

উপরে