আপডেট : ২১ জানুয়ারী, ২০১৮ ০৮:১৫

বিশ্ব ইজতেমার শেষ পর্বের আখেরি মোনাজাত আজ

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্ব ইজতেমার শেষ পর্বের আখেরি মোনাজাত আজ

টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে আজ রবিবার। সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টার মধ্যে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন কাকরাইল মসজিদের হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জোবায়ের। বাংলা ও আরবিতে এ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। আর এর মাধ্যমে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমা। এর আগে ১২-১৪ জানুয়ারি মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হয়।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি মো. মাহফুজ জানান, দ্বিতীয় পর্বেও আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন কাকরাইল মসজিদের  মাওলানা মোহাম্মদ জোবায়ের। তিনি আরবি ও বাংলায় মোনাজাত পরিচালনা করবেন।

গত পর্বের মতো এপর্বেও বিশ্ব ইজতেমার অন্যতম আকর্ষণ যৌতুকবিহীন বিয়ে শনিবার অনুষ্ঠিত হয়নি। তাবলিগ জামাতের আগামী ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমা ২০১৯ সালের ১৮ জানুয়ারি থেকে  প্রথম পর্ব এবং ২৫ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় পর্ব টঙ্গীর তুরাগ তীরে অনুষ্ঠিত হবে। 

এদিকে আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে দ্বিতীয় দিনেও দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানের দিকে ছুটে আসছেন। মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মুসল্লিদের এ ঢল অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে ইজতেমা কর্তৃপক্ষ। বিশেষ করে আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন থানাসহ গাজীপুর ও আশপাশের এলাকার মুসল্লির ঢল নামবে ইজতেমা অভিমুখে, যার কারণে টঙ্গীর তুরাগ তীর জনসমুদ্রে পরিণত হবে। আয়োজকদের ধারণা, অন্য বছরের চেয়ে এ বছর আবহাওয়া অনুকূল থাকায় মুসল্লির সংখ্যা অনেক বেশি হবে। ২০ থেকে ২৫ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নিতে পারেন বলে আয়োজকদের ধারণা।

এদিকে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে শিল্প নগরী টঙ্গী এরই মধ্যেই ধর্মীয় নগরীতে পরিণত হয়েছে। শনিবার সকালেই টঙ্গী শহর এবং ইজতেমাস্থল ও এর আশপাশের এলাকা জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে। টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমায় আগত লাখ লাখ মুসল্লির পদভারে মুখর হয়ে উঠেছে।

ইসলামী দাওয়াতের মাধ্যমে ঈমান আকিদা বিষয়ে শিক্ষা লাভ করে ইহলোকিক ও পারলৌকিক মঙ্গল কামনার জন্য মুসল্লিরা দেশের দূর-দূরান্ত থেকে ইজতেমা ময়দানে উপস্থিত হয়েছেন। শনিবারও টঙ্গী অভিমুখী বাস, ট্রাক, ট্রেন, লঞ্চসহ বিভিন্ন যানবাহনে ছিল মানুষের ভিড়। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মানুষের এ ঢল অব্যাহত থাকবে। এই পর্বের ইজতেমায় ঢাকার একাংশসহ দেশের ১৩টি জেলার মুসল্লিরা ২৮ খিত্তায় অবস্থান নিয়েছেন।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে মুসল্লিদের সুবিধার্থে শনিবার দিবাগত রাত থেকে ওই এলাকায় যানবাহন চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে পুলিশ। রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে। এবারের বিশ্ব ইজতেমা নজীরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রায় ১২ হাজার র‌্যাব ও পোশাকধারী পুলিশের পাশপাশি রয়েছে সাদা পোশাকে প্রায় তিন হাজার গোয়েন্দা সদস্য। আকাশ ও নৌপথে রয়েছে র‌্যাবের সতর্ক নজরদারী।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে