আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:০১

শ্রমিকদের ১০ বছরের বেশি ভিসা দিচ্ছে মালয়েশিয়া

অনলাইন ডেস্ক
শ্রমিকদের ১০ বছরের বেশি ভিসা দিচ্ছে মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মীরা ১০ বছরের বেশি ভিসা নবায়ন করতে পারবে। সরকারের এমন ঘোষণায় মালিকপক্ষ এবং বিদেশি কর্মীদের হতাশা কাটলো। চলতি বছরের জুন মাসে দেশটির সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে, বিদেশি কর্মীদের ১০ বছরের বেশি ভিসা দেয়া হবে না।

২২ জুন নোটিশে এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় অভিবাসন দফতর। ফলে লক্ষাধিক বাংলাদেশি কর্মীদের দেশে ফেরার আশংকা তৈরি হয়েছিল। শুধু বিদেশি কর্মীরাই নয় মালিকপক্ষও ছিল শংকায়। বিভিন্ন কোম্পানির মালিকপক্ষ সরকারের কাছে আবেদন করলে এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা আলোচনার মাধ্যমে তাদের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় দক্ষ কর্মীদের অভাব পূরণে সরকার এ সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে এসেছে।

মালয়েশিয়ায় কর্মরত বিদেশি কর্মীরা ১০ বছর পর আবার ভিসা নবায়ন করে দেশটিতে অবস্থান করতে পারবে বলে জানিয়েছেন মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কোলাসিগারান।

মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, ২৯ আগস্ট মন্ত্রিপরিষদ এ সিদ্ধান্তে তাদের সম্মতি জানান। সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে ১ অক্টোবর থেকে।

স্থানীয় একাধিক সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়, বিদেশি কর্মীরা ১০ বছরের পর শুধুমাত্র তিন বছর বা তিনবার তাদের ভিসা নবায়ন করতে পারবে বলে জানান এম কোলাসিগারান। তবে, এসব বিদেশি কর্মীরা এন্ট্রি পারমিট, স্থায়ীভাবে বসবাস বা মালয়েশিয়ার নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবে না বলেও জানান তিনি।

মানবসম্পদ মন্ত্রী আরও বলেছেন যে, ১৯৯২ সাল থেকে সরকার কর্তৃক সিদ্ধান্তে বিদেশিকর্মী নিজেরাই তাদের লেভি (ভিসা কর) পরিশোধ করতো, পরে ২০১৬ সালের ২৫ মার্চ মন্ত্রিপরিষদ সিদ্ধান্ত নেয় যে, কর্মীরা নয় নিয়োগকর্তারাই তাদের বিদেশি কর্মীদের লেভি পরিশোধ করবে। এটি চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে কর্যকর হয়েছে।

কোলাসিগারান মনে করেন, এ সিদ্ধান্তের ফলে নিয়োগকর্তারা তাদের দক্ষ বিদেশি কর্মীদের কাজে বলবৎ রাখতে পারবে।

এ বিষয়ে দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর মো. সায়েদুল ইসলাম বলেন, গত ২২ জুন যখন মালয়েশিয়া সরকার ঘোষণা দেয় ১০ বছরের বেশি বিদেশি কর্মীদের ভিসা নবায়ন করবে না। এমন ঘোষণায় আমাদের দেশের দক্ষকর্মীরা হতাশায় ভুগছিলেন।

অনেকে ফোন করে বিষয়টি জানার চেষ্টা করেছেন। আমরা অভয় দিয়ে বলেছি এ বিষয়ে হাইকমিশনার মুহা. শহীদুল ইসলামের নির্দেশনায় সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা চলছে অবশ্যই ভালো সুসংবাদ পাব। দূতাবাসের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় ও মালিকপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে সরকার তাদের দাবি মেনে নিয়ে দক্ষ কর্মীদের ভিসা নবায়নের সুযোগ করে দিয়েছে।

আর এ ভিসা নবায়নের সুযোগ করে দেয়ায় দূতাবাসের পক্ষ থেকে মালয়েশিয়া সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন হাইকমিশনার মুহা.শহীদুল ইসলাম।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে