আপডেট : ৩০ মে, ২০১৬ ২১:০১

সৌদি প্রবাসীদের জন্য হজের নিবন্ধন শুরু ২০ জুলাই; আবেদন করতে হবে অনলাইনে

অনলাইন ডেস্ক
সৌদি প্রবাসীদের জন্য হজের নিবন্ধন শুরু ২০ জুলাই; আবেদন করতে হবে অনলাইনে

সৌদি আরবের ভেতর থেকে পবিত্র হজ পালনে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের এ বছরের নিবন্ধনের সময় শুরু হবে ২০ জুলাই থেকে। সৌদি হজ ও ওমরা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হোসেইন আল শারিফ বলেছেন, নাগরিক ও প্রবাসীরা এ বছর খুব সহজেই মন্ত্রণালয়ের হজ নিবন্ধনের (http://localhaj.haj.gov.sa) ওয়েবসাইটে গিয়ে স্থানীয় হজ প্রতিষ্ঠান বেছে নিতে পারবেন।

মন্ত্রণালয়ের ই-পোর্টালের মাধ্যমে একজন হজে গমন-ইচ্ছুক ব্যক্তি এজেন্সিগুলোর মক্কা, মিনা ও আরাফাতে অবস্থান এবং কী কী সেবা দেবে, তা বিস্তারিত জানতে পারবেন।

মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তার বরাতে সৌদি গেজেট বলেছে, এবারের হজের ফি হবে ন্যূনতম ৩০০০ রিয়াল থেকে সর্বোচ্চ ১১,৮৯০ রিয়াল। অনলাইনে হজের বুকিং দেওয়ার জন্য স্থানীয় হজযাত্রীকে মন্ত্রণালয়ের ই-পোর্টাল http://localhaj.haj.gov.sa -এ গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। সাধারণ (নরমাল), নিম্ন ব্যয় (লো কস্ট ) ও সুলভ—এই তিন শ্রেণির প্যাকেজের বিস্তারিত এই ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

প্যাকেজ ও কোন শহর থেকে যেতে ইচ্ছুক, সেটা নির্বাচন করে দিলে পরবর্তী ধাপে কতজন পুরুষ ও নারী যেতে চান, তা লিখলেই পরের ধাপে আপনাকে আপনার নির্বাচিত শহরের হজ এজেন্সির তালিকা দেখাবে। সেখানে কোম্পানির বিস্তারিত, যেমন ক্যাম্প কোড, ক্যাম্পের ক্যাটাগরি, জামারাত থেকে দূরত্ব, যাতায়াতের ব্যবস্থা কী, ক্যাম্পের গুণগত মান, খাবারের মান প্রভৃতি জানা যাবে।

একজন দর্শনার্থী অবশ্য সব সেবার বিবরণ দেখার জন্য বিস্তারিত (ডিটেইল) লেখা বাটনে ক্লিক করে প্রতিটি হজ এজেন্সির বিস্তারিত দেখতে পারবেন। যখনই আপনি কোনো এজেন্সি নির্বাচন করবেন; বুক লেখায় ক্লিক করবেন, এর পরেই আপনাকে আপনার বিস্তারিত তথ্য, যেমন মোবাইল নম্বর, ই-মেইল, নাম, জাতীয়তা, ইকামা নম্বর (সৌদিদের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর), পুরুষ না নারী, জন্ম তারিখ দিতে বলা হবে। অতঃপর সবকিছু ঠিকভাবে লিখে সাবমিট বাটনে ক্লিক করলে আপনার রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হবে।

যদি আপনি বিগত পাঁচ বছরের মধ্যে হজ না করে থাকেন, তবে আপনি সফল রেজিস্ট্রেশনের একটি মেসেজ পাবেন আপনার মোবাইলে টাকা জমা দেওয়ার বিস্তারিতসহ। সফলতার সঙ্গে টাকা জমা হলেই আপনি মোবাইলে একটি সফলতার মেসেজসহ একটি রেজিস্ট্রেশন কোড (বা কন্ট্রাক্ট নম্বর ও তারিখ) পাবেন। প্রাপ্ত কোড (বা কন্ট্রাক্ট নম্বর ও তারিখ) ওয়েবসাইটে প্রবেশ করিয়ে আপনার এজেন্সির সঙ্গে নিবন্ধনের চুক্তিপত্র প্রিন্ট করতে পারবেন।

এরপরে এই প্রিন্ট করা ডকুমেন্টের সঙ্গে প্রয়োজনীয় অন্য কাগজপত্র, যেমন ইকামা (কপিসহ), পাসপোর্ট আকারের দুই কপি ছবি, মেনিনজাইটিসের টিকা দেওয়ার কার্ড প্রভৃতি নিয়ে আপনার নির্ধারিত হজ এজেন্সিতে যোগাযোগ করে আপনার তাসরিয়া (হজ পারমিট) সংগ্রহ করবেন এবং আপনার হজযাত্রা শুরুর বিস্তারিত জেনে নেবেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে