আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২১:৫০

লিংকনের শিক্ষার্থীরা আমেরিকার স্টাটফোর্টে পড়তে যেতে পারবে

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আমেরিকায় পড়ার নতুন দিগন্তের সূচনা
বিডিটাইমস ডেস্ক
লিংকনের শিক্ষার্থীরা আমেরিকার স্টাটফোর্টে পড়তে যেতে পারবে

১৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার লিংকন ইউনিভার্সিটি এবং আমেরিকার স্টাটফোর্ট ইউনিভার্সিটির মধ্যে একটি চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছে। লিংকনের মায়াং ক্যাম্পাসে এই চুক্তি সাক্ষর অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। এই চুক্তির আওতায় লিংকন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা ডুয়েল প্রোগ্রামে স্টাটফোর্ট ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনার পাশাপাশি ক্রেডিট ট্রান্সফারের সুবিধা পাবে।

লিংকন ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশর প্রচুর শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে। এই চুক্তিতে বাংলাদেশি শিক্ষাথীদের জন্য আমেরিকায় যাওয়ার একটি নতুন দিগন্তের সূচনা হলো।

চুক্তি সাক্ষর অনুষ্ঠানের উদ্ভোধনী বক্তব্যে লিংকন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অমিয় ভৌমিক বলেন, ‘আমাদের ইউনিভার্সিটি ২০০২ সাল থেকে সবার সহযোগিতায় বর্তমানে প্রায় ৯০ টি প্রোগ্রাম চালাচ্ছে। এর মধ্যে মেডিকেল, ডেন্টাল, ফার্মেসি, নার্সিং অন্যতম।’ তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন, এ বছরের মধ্যে আমরা আরো ৩৬ টি প্রোগ্রাম চালু করবো।

স্টাটফোর্ট ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট ড. রিচহার্ট আর সার্ট বলেন লিংকন ইউনিভার্সিটির সঙ্গে শিক্ষা বিষয়ক চুক্তি সাক্ষরিত করে আমরা আনন্দিত। আমাদের লক্ষ্য শিক্ষার্থীদেরকে বিশ্ব দরবারে মাথা তুলে দাড়াতে সহায়তা করা।

লিংকন ইউনিভার্সিটির প্রো-চ্যান্সেলর দাতু ড. বিবি ফ্লোরিনা আব্দুল্লাহ তাঁর বক্তব্যে স্টাটফোর্টকে ধন্যবাদ জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্টাটফোর্ট ইউনিভার্সিটির মার্কেটিং ডিরেক্টর ফিরোজ খান, লিংকন ইউনিভার্সিটির রেজিষ্ট্রার নূর হাফিজা, ডেপুটি ভাইস চ্যান্সেলর (একাডেমি) দাতু গণি, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স) দাতু ইউসুফ, বিজনেস অনুষদের ডিন ড. অভিজিৎ ঘোষ, মানব সম্পদ পরিচালক রাজা গোপাল, ড.  সন্দিপ পোদ্দার, এশিয়া বিষয়ক পরিচালক এস এম জহিরুল ইসলাম সবুজ, এডমিশন বিভাগের কর্মকর্তা ইদ্রিস আলী, তথ্য প্রযুক্তি কর্মকর্তা শমিম রেজা, হিসাব বিভাগের কর্মকর্তা আব্দুল মোমেন সুমনসহ অন্যান্য কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ।

উপরে