আপডেট : ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১৫:১০

খালেদাকে ক্ষমা চাইতে বললেন প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধারা

অনলাইন ডেস্ক
খালেদাকে ক্ষমা চাইতে বললেন প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধারা

মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে বক্তব্যের জন্য খালেদা জিয়াকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধারা।

প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের ওই বিবৃতিতে বলা হয়, শহীদের সংখ্যা নিয়ে সন্দেহ তুলে বিএনপি প্রধান ‘স্বাধীনতার ইতিহাসের উদ্দেশ্যমূলক অবমাননা’ ও ‘নির্জলা মিথ্যাচার’ করেছেন।

গত সোমবার ঢাকায় এক আলোচনা সভায় মুক্তিযুদ্ধে শহীদের নিহতের সংখ্যা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সেক্টর কমান্ডার জেনারেল জিয়াউর রহমানের স্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

তিনি সরকারিভাবে করা মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা নিয়ে আপত্তি তোলার পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমালোচনাও করেন।

এর পরই খালেদার বক্তব্য নিয়ে দেশে-বিদেশে সমালোচনা শুরু হয়। বক্তব্য প্রত্যাহার চেয়ে বুধবার খালেদাকে উকিল নোটিসও পাঠিয়েছেন এক আইনজীবী। একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটিও বিএনপি চেয়ারপারসনকে ক্ষমা চাইতে বলেছে।

বৃহস্পতিবার খালেদার বিরুদ্ধে নড়াইল আদালতে মামলাও হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের বিবৃতিতে বলা হয়, “মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদের সংখ্যা-বিতর্ক তুলে এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে ইতিহাস বিবর্জিত অসত্য বক্তব্য উপস্থাপন করে খালেদা জিয়া বাংলাদেশের জাতীয় ইতিহাসের উদ্দেশ্যমূলক অবমাননা করেছেন।”

এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে খালেদা ‘রাষ্ট্রের পবিত্র সংবিধানের লঙ্ঘন’ করেছেন বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

এতে আরও বলা হয়, “এমন বক্তব্যের মাধ্যমে বাংলাদেশের গণহত্যা বিষয়ে পাকিস্তানের মন্তব্যকে বেগম খালেদা জিয়া স্বীকৃতি দিয়েছেন।”

বিবৃতি স্বাক্ষর করেছেন মুক্তিযোদ্ধা ও বিজ্ঞানী নূরন্নবী, যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আহ্বায়ক এম এ বাতেন, সাবেক কমান্ডার নূরনবী, যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা যুবকমান্ডের সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী ও সেক্রেটারি শাহীন ইবনে দিলওয়ার, যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদের সেক্রেটারি শিতাংশু গুহ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সভানেত্রী মোর্শেদা জামান ও সেক্রেটারি আব্দুর রহমান মামুন, যুক্তরাষ্ট্র সম্মিলিত পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতা আশরাফুজ্জামানসহ অনেকে।

 

বিডিটাইমস ৩৬৫ ডটকম/একে

উপরে