আপডেট : ১৯ মার্চ, ২০১৮ ২০:২৮

এই লাশ আমরা কোথায় রাখবো?

অনলাইন ডেস্ক
এই লাশ আমরা কোথায় রাখবো?

সোমবার থেকে সোমবার। চলে গেলো একটি সপ্তাহ। কথা ছিল ভ্রমণ শেষে রাজ্যের স্মৃতি নিয়ে ফিরবেন। তারা ফিরলেন ঠিকই, কিন্তু প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী নয়, ফিরলেন নিথর, নিস্তেজ প্রাণহীন দেহে।

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গত সোমবার ইউএস-বাংলার প্লেন দুর্ঘটনায় পড়ে বিধ্বস্ত হয়। মোট ৭১ জনের সঙ্গে নেপালে ভ্রমণ করতে এসে ঠিক ল্যান্ডিংয়ের আগ মুহূর্তে দুর্ঘটনায় পড়ে নিহত হন ২৬ জন বাংলাদেশি।

যাদের মধ্যে শনাক্ত হওয়ায় ২৩ জনকে বিমানবাহিনীর কার্গোতে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। দুপুরে আর্মি স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাদের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এমন কি কথা ছিল? না। হয়তো নেপাল ভ্রমণ শেষে আজ তারা হাস্যোজ্জ্বল সেলফি দিতেন। প্রাণখুলে কেউ লিখতেন প্রথম বিদেশ ও প্লেন ভ্রমণের অভিজ্ঞতা। কথা ছিল নিরাপদে বাংলাদেশে ল্যান্ড করার দোয়া চেয়ে স্ট্যাটাস দেওয়ার। হয়তো কথা দিয়ে এসেছিলেন ফেরার সময় নিয়ে যাবেন প্রিয়জনের কাঙ্ক্ষিত কোনো উপহার। কিন্তু কোনো কথাই রাখা হলো না তাদের। 

আজ টানা সাতদিন পর নিথর মরদেহগুলো যখন বুঝিয়ে দেয়া হয়, তখন কান্নায় ভেঙে পড়েন অনেকে। এ সাতদিন নির্ঘুম রাত কেটেছে নিহতদের স্বজনদের। কখন প্রিয় মানুষটি ফিরবে, কখন তার একটু সান্নিধ্য পাবে- এ আশায় নরকময় সময় পার করেছেন তারা।  আজ প্রিয়জনকে কাছে পেয়েও কি সে কষ্ট দূর হবে? না। এ বেদনা কখনো ভোলার নয়। 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে