আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ১৮:০৭

‘সোনার বেল্ট’ পরে আসলেন তিনি, অতঃপর...!

অনলাইন ডেস্ক
‘সোনার বেল্ট’ পরে আসলেন তিনি, অতঃপর...!

দুবাই থেকে এসেছিল ওই ফ্লাইট। এক যাত্রী দ্রুত ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ‘গ্রিন চ্যানেল’ ত্যাগ করছিলেন। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানতে চান তাঁর কাছে সোনা আছে কি না। তিনি অস্বীকার করেন। কিন্তু তাঁর কোমরের বেল্ট খুলে পরীক্ষা করতেই মিলল সোনার পাত। দেখতে একেবারে বেল্টের মতো! চামড়ার বেল্টের ভেতরেই ছিল সোনার বেল্ট!

আজ শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) এ ঘটনা ঘটে। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই সোনার পাতের ওজন ২৩২ গ্রাম। এ ছাড়া ওই যাত্রীর মানিব্যাগে আরো ১৭০ গ্রাম সোনার অলংকার পাওয়া যায়। মোট ৪০২ গ্রাম সোনার দাম ২০ লাখ ১০ হাজার টাকা।

আটক ওই যাত্রীর নাম রহমত উল্লাহ। তিনি ফেনীর সোনাগাজী এলাকার বাসিন্দা।

শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা রহমত উল্লাহর পাসপোর্ট পরীক্ষায় দেখতে পান, এই ব্যক্তি চলতি বছরে তিনবার বিদেশ ভ্রমণ করেছেন। গোপন সংবাদ থাকায় এবং যাত্রীর গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় রহমত উল্লাহর প্যান্টের চামড়ার বেল্ট ‘স্ক্যানিং’ করে সোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

পরে বিমানবন্দরের বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে রহমত উল্লাহর বেল্ট খুলে ২৩২ গ্রাম ওজনের সোনার পাত এবং তাঁর মানিব্যাগ থেকে ১৭০ গ্রাম স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে রহমত উল্লাহ শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের জানান, নজরদারি এড়াতে এই কৌশল অবলম্বন করা হয়েছে। এ ঘটনায় রহমত উল্লাহর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে