আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২১:৪৩

জীবন উপভোগ করতে দ্রুত বিয়ে করুন!

বিডিটাইমস ডেস্ক
জীবন উপভোগ করতে দ্রুত বিয়ে করুন!

বর্তমান সময়ের তরুণরা ক্যারিয়ারের ওপর বেশি গরুত্ব দেয়। তারা অল্প বয়সে বিয়ে করতে চায় না। ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হতে চায়; ভালো বেতনের চাকুরির অপেক্ষায় থাকে। আর এসব হতে হতে ত্রিশ বছর পার করে ফেলে। প্রশ্ন হলো, বিয়ের আগে ক্যারিয়ার তৈরি করা কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ? বিয়ে জীবনের একটা অংশ। ক্যারিয়ারও জীবনের একটা অংশ। আমার মতে বিয়ের ক্ষেত্রে শুধু ক্যারিয়ারের জন্য দেরি করা উচিত না। এমনকি উচ্চতর পড়াশোনার জন্যও দেরি করা উচিত না।

তবে আমি বলছি না যে, দশম শ্রেণিতেই বিয়ে করে ফেলেন। প্রাপ্ত বয়স্ক হলে অবশ্যই বিয়ে করতে পারেন। হাদিসে আছে নবীজি সা. বলেছেন, ‘হে যুবক-যুবতীরা! তোমাদের মধ্যে যাদের সামর্থ্য আছে, তোমরা বিয়ে করে ফেলো। তাহলে দৃষ্টি সংযত থাকবে, শালীনতা বজায় থাকবে।’ [বুখারি শরিফ]। যুব সমাজ বিয়ে করতে দেরি করছে এই চিন্তা থেকে যে তারা মনে করে, বিয়ে করলে তো স্ত্রীর দেখাশোনা করতে হবে। আর সেটা বাধা হয়ে দাঁড়াবে ক্যারিয়ার গঠনে বা উচ্চতর পড়াশোনায়। এরকম ধারণা আসলে ভুল।

এর উল্টোটা চিন্তা করে দেখেন বিয়ে করলে স্ত্রী আপনাকে পড়াশোনায় সাহায্য করবে। নোট তৈরিতে সাহায্য করবে। আরাম-আয়েশের ব্যবস্থা করবে। আগে শুধু মা দেখা-শোনা করতেন। এখন মা’র সঙ্গে স্ত্রীও করবে। অনেকে বলতে পারেন ‘ছাত্র অবস্থায় আমি তার ভরণ-পোষণ দিব কী করে? তখন তো মাত্র উপার্জনের সময় আমার।’

তাদের এ আপত্তির উত্তরেই নবীজি সা. বলেছেন ‘যদি তাদের সামর্থ্য থাকে।’ সামর্থ্য বলতে পরিবার যদি তাদের খরচ বহন করতে পারে। আর বর্তমানে যারা ক্যারিয়ার গঠনের কথা বলেন, তাদের বেশির ভাগই ধনী পরিবার। তাদের সঞ্চয় করা টাকা থাকে। তাই অর্থনৈতিক কোনো সমস্যা না হলে দ্রুত বিয়ে করে ফেলা উচিত। দ্রুত বিয়ে করে সন্তানও তাড়াতাড়ি নিবেন।

অনেকে বলতে চান ‘আমি আরাম করতে চাই। একটু রিল্যাক্সে থাকতে চাই। তাই দেরিতে সন্তান নিবো।’ তাদের উদ্দেশে বলবো আরে! আরাম করতে চাইলেই তো দ্রুত সন্তান নিবেন। ২০/২৫ বয়সের মধ্যে বিয়ে করে দ্রুত সন্তানের বাবা হবেন। আর চল্লিশ বছর বয়সে আপনার ছেলের বয়স হবে আঠারো বা উনিশ। তখন আপনার ব্যবসা থাকলে তাকে বুঝিয়ে দিতে পারেন।

ব্যবসা না থাকলেও উপার্জন করার মতো বয়স ছেলের তখন হয়ে যাবে। তারপর আপনি বাকী জীবন আরাম করেন। অতএব আমি বলবো, জীবন উপভোগ করতে চাইলে দ্রুত বিয়ে করুন। অন্যদিকে দ্রুত বিয়ে করলে সমাজের ক্ষতিকর বিষয় থেকেও রক্ষা পাওয়া যায়। কারণ, তরুণ বয়সে নারী সংক্রান্ত বিপদে পড়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি।

কলেজ-ভার্সিটির ছেলেরা মেয়েদের কাছে নায়ক সাজার চেষ্টা করে। অথচ বিয়ে করে ফেললে নায়িকা তো ঘরেই থাকে। তখন মাথায় আজে-বাজে চিন্তা আসবে না। পড়াশোনায়ও মনোযোগী হতে পারবেন। তাই বলছি ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবার সাথে সাথে সুযোগ থাকলে বিয়েটাও করে ফেলুন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে