আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৬:৩৩

ব্যাচেলররা অপেক্ষা করুন ১০ বছর!

অনলাইন ডেস্ক
ব্যাচেলররা অপেক্ষা করুন ১০ বছর!

আগামী ১০ বছরের মধ্যে নাকি রোবটই হবে আপনার সেক্স পার্টনার। অবাক হচ্ছেন? হওয়া অস্বাভাবিক নয়। কিন্তু এমনই ভবিষ্যতবাণী করেছেন চিকিত্সক ইয়ান পিয়ারসন। তাঁর দাবি, আগামী ১০ বছরের মধ্যেই দেশে, বিদেশে মধ্যবিত্ত বাড়িতেও স্পেশালাইসড রোবটের সংখ্যা বাড়বে। যারা গাড়ি তৈরি, বাড়ি পরিষ্কারের পাশাপাশি মানুষকে যৌন আনন্দও দেবে।

একটি অনলাইন সেক্স শপের হিসেব বলছে, ক্ষমতা থাকলে ক্রেতাদের মধ্যে ফ্রি-রোবট সেক্সের চাহিদা বাড়ছে। বেশ্যালয় বা স্ট্রিপ ক্লাবেও খদ্দেরদের জন্য রোবট রাখার পরিকল্পনা রয়েছে। এর দাম এখন সাধ্যের মধ্যে। বাজারের চাহিদার কথা মাথায় রেখে আরও কম দামে সেক্স রোবট তৈরি করছেন বিক্রেতারা। এই রোবটরা যৌন মিলনের সময় মানুষকে কথা বলে বা বিভিন্ন রকম আওয়াজ করেও আনন্দ দেবে। বিদেশের বাজারে এই ধরনের রোবটের দাম ৩০-৬০ হাজার ডলার।

সমাজে সেক্স রোবটের চাহিদা বৃদ্ধি বেশ ভয়েরও কারণ। কেন জানেন?

• সেক্স রোবট কখনও মানুশকে সম্পূর্ণ যৌন তৃপ্তি দিতে পারবে না। ফলে মানুষের মধ্যে হতাশা বাড়তে পারে।

• সিনেমা দেখে যাঁদের মধ্যে এই প্রবণতা তৈরি হয়েছে বাস্তবে তাঁরা সেক্স রোবট ব্যবহার করতে গিয়ে হতাশ হবেন।

• সেক্স রোবট ব্যবহার করলে ভবিষ্যতে মানুষের মধ্যে সম্পর্কের আরও অবনতি হবে।

কী ভাবে সেক্স রোবট অর্ডার দেন ক্রেতারা?

• সেক্স রোবটের চেহারা প্রথম দেখেন ক্রেতারা।

• এর পর রোবটের ত্বক, চুল এমনকী চোখের মণির রঙও নিজের খুশি মতো পছন্দ করেন তাঁরা।

• রোবটের গলার স্বরের মধ্যেও পছন্দের মানুষকেই খোঁজেন ক্রেতারা।       

উপরে