আপডেট : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১২:১২

চুরির দায়ে বানরকে হাত-পা বেঁধে সাঁজা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
চুরির দায়ে বানরকে হাত-পা বেঁধে সাঁজা!

চোরকে শাস্তিস্বরূপ দড়ি দিয়ে হাত-পা বেঁধে রাখার ঘটনা প্রায় শোনা যায়। কিন্তু তাই বলে কি এমন কখনো শোনা যায় চোর বানর আর চুরির শাস্তি হিবেসে তাকে একই দণ্ড দেওয়া। এক ‘হানাদার’ বানরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিল মুম্বাইয়ের একটি কলোনীবাসীরা।

যদিও ভারতে অধিকাংশ হিন্দু বানরকে পূজা করে, তথাপি বাসা-বাড়ি থেকে খাবার চুরির অপরাধে সেই বানরকেই কিনা দড়ি দিয়ে হাত-পা বেঁধে রাখলো তারা! বিরল এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ের একটি কলোনীতে। খবর এএফপির।

অতিষ্ঠ স্থানীয়রা জানান, ভারতের বাণিজ্যিক এলাকা সায়নে বানরটি গত ছয়মাস ধরে তাদের বাড়ি থেকে খাবার চুরি করছে ও বালিশ ছিঁড়ে কুটিকুটি করছে। এই ‘অত্যাচারী’ বানরকে ধরতে নিয়োগ করা হয় পেশাগত বানর শিকারি। দুইহাত, দুইপা এমনকি গলায়ও দড়ি দিয়ে চুপচাপ বসিয়ে রাখা হয় দুষ্টু বানরটিকে। এরপর তাকে খাঁচাবন্দি করা হয়। বানরটিকে ধরার পর বেঁধে এ ঘটনা দেখতে ঘটনাস্থলে জড়ো হয় অনেক লোক।

বানরের অত্যাচারের কথা স্থানীয় কাউন্সিলরকে জানানো হয়। কিন্তু কোনভাবেই বানরের অনিষ্ট থেকে রক্ষা পাচ্ছিলেন না কলোনিবাসী। কোনো উপায় না পেয়ে বানর শিকারীর দারস্থ হয় স্থানীয়রা। গত ৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার খাবারের লোভ দেখিয়ে ফাঁদ পেতে বানরটিকে আটক করে তারা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে