আপডেট : ১০ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৫:১৮

সিগারেট খাওয়ার উপকারীতা!

বিডিটাইমস ডেস্ক
সিগারেট খাওয়ার উপকারীতা!

সিগারেট খাওয়া বা ধূমপানের কোন উপকারীতা নেই বলেলেই চলে। তবু আমরা সিগারেট খাওয়া ছেড়ে দিই ক’জনা? ছাড়বোই যখন না, তবে আসুন- আমরা টেনে বের করে আনি এর থেকে অন্তত তিনটি উপকারীতার!

১. চোর বাড়িতে আসবে না। কারণ সিগারেট খেতে খেতে ফুসফুসের এমন বারোটা বাজে যে, সারা রাতই ধূমপায়ীকে কাশতে হয়। আর এই কাশির শব্দ শুনে চোর ভাবে যে বাড়ির লোক ঘুমায় নি। তাই চোর বাড়িতে আসবে না!
২. কুকুরে কামড়াবে না। কারণ কাশিতে কাশিতে এমন অবস্থা হয় যে ধূমপায়ী সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ে। তখন লাঠিতে ভর দিয়ে হাঁটতে হয়। হাতে সবসময় লাঠি থাকে বলে কুকুর কাছে আসে না।
৩. ধূমপান তো যৌবন থাকা অবস্থায়ই জীবন শেষ করে দেয়। বৃদ্ধ হওয়ার সময়ই তো নেই। তাই অটুট যৌবন।

উল্লেখ্য, এক জরিপে দেখা গেছে যে, পৃথিবীর সমস্থ ধূমপায়ী যদি একমাস ধূমপান না করে তবে যে পরিমাণ অর্থ বাঁচে, তা দিয়ে পৃথিবীর সব মানুষকে এক বছর পেট ভরে, বিনা পয়সায় খাওয়ানো সম্ভব।

ধর্মগ্রন্থেও মাদকতার কোন স্থান নেই। মাদক দ্রব্য হতে নিজেকে দূরে রাখুন এবং অন্যকে দূরে থাকতে উত্সাহিত করুন।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/পিএম

উপরে