আপডেট : ৪ জুন, ২০১৯ ১২:৫০

যেভাবে স্থগিত হলো মনজুর শাহরিয়ারের বদলি আদেশ

অনলাইন ডেস্ক
যেভাবে স্থগিত হলো মনজুর শাহরিয়ারের বদলি আদেশ

অবশেষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের হস্তক্ষেপে আড়ং এ অভিযান চালানো ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের অফিসার (উপ-পরিচালক) মনজুর মো. শাহরিয়ারকে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর খুলনা জোনে বদলির আদেশ স্থগিত করা হয়েছে।

মনজুর মো. শাহরিয়ারকে বদলির আদেশের একটি কপি সোমবার দিবাগত রাতে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। চলে বিতর্ক। এরপরই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের হস্তক্ষেপে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন তার বদলির আদেশ স্থগিতের নির্দেশ দেন।

এর আগে মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী’র ডেপুটি প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন তার ব্যক্তিগত ফেসবুকে লিখেন, সরকারের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা অধিকাংশই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সফরে দেশের বাইরে ছিলেন। আজ এসেছেন পুরো বিষয়টি জেনেছেন। অস্থির না হয়ে একটু অপেক্ষা করুন। ভালো কিছুই হবে। কারন জনকল্যাণে আইনানুগ দায়িত্বপালনকারী কর্মকর্তাদের সবসময় সুরক্ষা দিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা আছে।

জানা গেছে, গত ২৫ মে একজন ক্রেতা উত্তরা আড়ং থেকে একটি পাঞ্জাবি কেনেন ৭১৩ টাকায়। একই পাঞ্জাবি ৩১ মে কিনতে গেলে দাম রাখা হয় ১ হাজার ৩১৫ টাকা। এ চিত্র তুলে ধরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করেন ওই ভোক্তা। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল উত্তরা আড়ং-এ অভিযান চালিয়ে অভিযোগের সত্যতা পায় সংস্থাটি। এ সময় বেশি দাম রাখার কোনো কারণ জানাতে পারেনি আড়ংয়ের ওই শো-রুমের কর্মকর্তারা।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার জানান, আড়ং একটি ব্র্যান্ড। দেশি ভালো পণ্য বিক্রি করে বলে তাদের প্রতি ক্রেতাদের রয়েছে আস্থা ও সরল বিশ্বাস। এটি পুঁজি করে কৌশলে ক্রেতাদের ঠকাচ্ছে, যা ভোক্তা আইনপরিপন্থী।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম  

উপরে