আপডেট : ৮ মে, ২০১৯ ১৫:০০

ইউএনওরা পাচ্ছেন কোটি টাকা দামের গাড়ি!

অনলাইন ডেস্ক
ইউএনওরা পাচ্ছেন কোটি টাকা দামের গাড়ি!

নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে প্রশাসনের নিম্নস্তরে দায়িত্ব পালন করা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) জন্য সর্বোচ্চ সিলিংয়ের গাড়ি কেনা হচ্ছে।

সূত্র জানায়, ইউএনওদের জন্য প্রায় কোটি টাকা মূল্যের স্পোর্টস কিউএক্স জিপ গাড়ি কেনা হচ্ছে। প্রথম দিকে সব খরচসহ ৫৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা দামের গাড়ি কেনার কথা থাকলেও পরবর্তীতে প্রতিটি গাড়ির ক্রয়মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা।

অর্থাৎ, প্রতিটি গাড়ির দাম বাড়ানো হয়েছে ৩৪ লাখ ৭৯ হাজার টাকা। অথচ সরকারের প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা অর্থাৎ সচিব, অতিরিক্ত সচিব, যুগ্ম সচিবরা তাদের বেতন স্কেল অনুসারে তারা ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা দামের গাড়ি পাবেন। পক্ষান্তরে ইউএনওদের বেতন স্কেল অনুসারে তারা পাবেন ৫৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা দামের গাড়ি। কিন্তু নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে ইউএনওদের জন্য সর্বোচ্চ সিলিংয়ের গাড়ি কেনা হচ্ছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুক্তি হচ্ছে উপজেলা পর্যায়ে রাস্তা ভালো না। ফলে কম দামের গাড়ি ইউএনওদের দেওয়া হলে তা দ্রুত বিকল হয়ে যাবে। যে কারণে প্রথম দিকে প্রতিটি গাড়ির ক্রয়মূল্য ৫৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হলেও পরবর্তীতে তা বাড়িয়ে ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা করা হয়েছে। অপর দিকে ঠিক উপজেলা পর্যায়ে অ্যাসিল্যান্ডদের জন্য কেনা গাড়ির সব খরচসহ মূল্য হচ্ছে মাত্র ৪৯ লাখ টাকা। একই স্থানে অ্যাসিল্যান্ডরা ৪৯ লাখ টাকা দামের গাড়ি ব্যবহার করতে পারলে ইউএনওরা কেন ৫৬ লাখ টাকা দামের গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন না এমন প্রশ্নের কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রশাসন দুলাল কৃষ্ণ সাহা বলেন, গ্রামের রাস্তা ভালো না। কম দামের গাড়ি কিনলে তা অল্প দিনের মধ্যেই বিকল হয়ে যাবে। সেই কারণে গাড়ির দাম বাড়ানো হয়েছে। এর বেশি তিনি কোন কথা বলতে চাননি।

জনপ্রশাসন ও অর্থ বিভাগের একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ইউএনওদের জন্য ৫৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা দামের গাড়ি কেনার প্রস্তাব করা হয়েছে জানাজানি হওয়ার পর প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তারা বিষয়টি জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীকে অবহিত করেন। পরবর্তীতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় নিজেই প্রতিটি গাড়ি ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা নির্ধারণ করে প্রতিমন্ত্রী পর্যায়ে ফাইল অনুমোদন হয়। ওই অনুমোদনের আলোকে বিভাগে গাড়ির মডেল পরিবর্তন করে মূল্য নির্ধারণের সুপারিশ করেন।

জনপ্রশাসনের ওই সুপারিশের ওপর ভিত্তি করে অর্থ বিভাগের ব্যয় ব্যবস্থাপনা অনুবিভাগ থেকে ১০ মার্চ প্রতিটি গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ফি, সিএনজি কনভারশন, সরকারের সব ট্যাক্স এবং ভ্যাটসহ মূল্য পুনরায় নির্ধারণ করা হয় ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। এর আগে ১০ জানুয়ারি প্রতিটি গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ফি, সিএনজি কনভারশন, সরকারের সব ট্যাক্স এবং ভ্যাটসহ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল ৫৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য, সরকারের প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সর্বোচ্চ মূল্য হচ্ছে ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। অর্থাৎ একজন কর্মকর্তা সচিব, অতিরিক্ত সচিব, যুগ্ম সচিবরা হচ্ছেন সরকারের প্রাধিকার প্রাপ্ত কর্মকর্তা। তাদের বেতন স্কেল অনুসারে তারা ৯১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা দামের গাড়ি পাবেন। পক্ষান্তরে ইউএনওদের বেতন স্কেল অনুসারে তারা পাবেন ৫৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা দামের গাড়ি। কিন্তু নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে ইউএনওদের জন্য সর্বোচ্চ সিলিংয়ের গাড়ি কেনা হচ্ছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে