আপডেট : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৭:৫০

এমপিদের ফ্ল্যাটে অন্য কেউ থাকতে পারবে না

অনলাইন ডেস্ক
এমপিদের ফ্ল্যাটে অন্য কেউ থাকতে পারবে না

সংসদ সদস্য ব্যতীত তাদের ফ্ল্যাটে অন্য কারও অবস্থান নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। বৃহস্পতিবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদ ভবনে কমিটির সভাপতি চিফ হুইপ নূর ই আলম চৌধুরী এমপির সভাপতিত্বে প্রথম বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

সংসদ সদস্যদের সার্বিক নিরাপত্তা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বেশ কিছু সুপারিশ করেছে কমিটি। সেগুলো হলো- প্রতিটি ভবনে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা স্থাপন, ইন্টারকম ও টেলিফোন সংযোগ স্থাপন, সংসদ সদস্য ব্যতীত ফ্ল্যাটে অন্য কারও অবস্থান নিষিদ্ধকরণ, সংসদ সদস্যদের ফ্ল্যাট ও অফিসে দর্শনার্থী সংখ্যা নির্দিষ্টকরণ, রাত ১১টার পর সদস্য ভবনে অবস্থান নিষিদ্ধকরণ, সংসদ লবিতে নাস্তা কিংবা খাবার পরিবেশন সীমিত করে শুধু চা-কফি পরিবেশন, ক্যাফেটেরিয়ার খাদ্যমান ও সার্বিক পরিবেশ উন্নত করার সুপারিশ করে।

কমিটি একাদশ জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্যদের অনুকূলে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ ও নাখালপাড়াস্থ সংসদ সদস্য ভবনের ফ্ল্যাট এবং শেরেবাংলা নগরস্থ সদস্য ভবনে অফিস কক্ষ বরাদ্দ, নিরাপত্তা জোরদার ও গণপূর্ত বিভাগের কার্যক্রম বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

বৈঠকে সংসদ সদস্যদের অনুকূলে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ ও নাখালপাড়াস্থ সংসদ সদস্য ভবনের ফ্ল্যাট এবং শেরে বাংলা নগরস্থ এমপি হোস্টেলে অফিস কক্ষ বরাদ্দ প্রদানের জন্য চিফ হুইপ নূর ই আলম চৌধুরী এমপির নেতৃত্বে চার সদস্যের উপ-কমিটি গঠিত হয়। উপ-কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি ও ফজলে হোসেন বাদশা এমপি। বৈঠকে দ্রুততম সময়ে সরেজমিনে ফ্ল্যাট ও অফিস পরিদর্শন করে একটি রিপোর্ট উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে কমিটির সদস্য এ বি তাজুল ইসলাম, হুইপ ইকবালুর রহিম, ফজলে হোসেন বাদশা, কাজী ফিরোজ রশীদ, হুইপ মাহবুব আরা বেগম গিনি, নূর মোহাম্মদ, মনজুর হোসেন , আশেক উল্লাহ এবং বিশেষ আমন্ত্রণে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী ও হুইপ আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান, গণপূর্ত বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী শাহাদাত হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে