আপডেট : ২৩ জুলাই, ২০১৮ ২০:৫৫

খনির কয়লা গেল কোথায় , তদন্ত করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক
খনির কয়লা গেল কোথায় , তদন্ত করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রায় সোয়া লাখ টন কয়লা গায়েবের ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কয়লা কোথায় গেল তার পূর্ণ তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। সোমবার বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা সাংবাদিকদের জানান।

কয়লা উধাওয়ের ঘটনায় মামলা করার জন্যও ইতোমধ্যে পেট্রোবাংলাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

কয়লা সরবরাহ না পাওয়ায় বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন রোববার রাতে বন্ধ হয়ে গেছে।

এনিয়ে আলোচনার মধ্যে সোমবার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস উদযাপন ও জনপ্রশাসন পদক বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে প্রধানমন্ত্রী সচিবালয়ে তার কার্যালয়ে যান। সেখানে জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী, সংশ্লিষ্ট সচিব, পিডিবি ও পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠকে করেন তিনি।

বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নে নসরুল হামিদ বলেন, উনি (প্রধানমন্ত্রী) পূর্ণ তদন্ত করতে বলেছেন। কারণ ঘটনাটা হয়ে আসছে প্রায় ২০০৫ সাল থেকে। আমরা পুরোটা কাজে নেমেছি। প্রধানমন্ত্রী কী এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ- এক সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, অবশ্যই, উনি তো আমার মন্ত্রী, এই বিভাগের মন্ত্রী।

এদিকে কয়লা গায়েব হওয়ার ঘটনায় দুর্নীতির প্রাথমিক সত্যতা মিলেছে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের কর্মকর্তারা। সোমবার বিকালে খনিতে প্রবেশ করে কাগজপত্র যাচাই-বাছাই এবং কোল ইয়ার্ড এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তারা। 

দুদক কর্মকর্তারা আরও জানান, খনির অনিয়মের বিষয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেখানে তদন্ত কার্যক্রম শেষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে