আপডেট : ২২ এপ্রিল, ২০১৭ ১৩:১০

বৃষ্টি উপেক্ষা করে শহীদ মিনারে লাকী আখন্দকে শেষ শ্রদ্ধা

অনলাইন ডেস্ক
বৃষ্টি উপেক্ষা করে শহীদ মিনারে লাকী আখন্দকে শেষ শ্রদ্ধা

ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি বইছে। এর মাঝেও কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা লাকী আখন্দকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে নেমেছে তারকা শিল্পী ও সাধারণ মানুষের ঢল।

লাকী আখন্দকে শ্রদ্ধা জানাতে এসে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘তার গান এ দেশের মানুষ মনে রাখবে। এই বীর মুক্তিযোদ্ধা-শব্দসৈনিক আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন অনন্তকাল। তার কন্যাকে বলতে চাই, আমাদের পক্ষ থেকে যা করণীয়, সেটা করবো। আপনাদের কোনও প্রত্যাশা থাকলেও জানাবেন। একজন মুক্তিযোদ্ধা ও আমার বন্ধু লাকীর জন্য যা করণীয় আমি করবো। কথা দিলাম।’

এর আগে আরমানিটোলায় কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা লাকী আখন্দের প্রথম জানাজা শেষে মরদেহ নিয়ে আসা হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। বেলা ১১টা থেকে সেখানে সর্বস্তরের লোকজন শিল্পীর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন।

বেলা ১১টা ২০ মিনিটের দিকে দেওয়া হয় রাষ্ট্রীয় গার্ড অব অনার। এখানে পরিবারের সদস্য, স্বজন ছাড়াও হাজির হয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, টিভি ব্যক্তিত্ব ফরিদুর রেজা সাগর, সংগীতশিল্পী নকীব খান, খুরশিদ আলম, ফকির আলমগীর, গীতিকবি শহীদুল্লাহ ফরায়জী, কবির বকুলসহ অনেকেই।

শহীদ মিনারের মরদেহ রাখা হবে বেলা ১টা পর্যন্ত। বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রিয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে দ্বিতীয় জানাজা শেষে নিয়ে যাওয়া হবে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে। সেখানেই লাকী আখন্দকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে।  

টানা আড়াই মাস হাসপাতাল জীবন শেষে গত সপ্তাহে আরমানিটোলার নিজ বাসায় ফিরেছিলেন কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী লাকী আখন্দ। ২১ এপ্রিল দুপুর নাগাদ তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। সন্ধ্যার আগে মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ কর্তব্যরত চিকিৎসক লাকী আখন্দকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৬১ বছর।

উপরে