আপডেট : ১৪ মে, ২০১৬ ১০:০২

পাড়া মহল্লায় সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের নজরদারি করবে পুলিশ কমিটি

বিডিটাইমস ডেস্ক
পাড়া মহল্লায় সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের নজরদারি করবে পুলিশ কমিটি

পাড়া মহল্লায় সন্দেহভানজদের গতিবিধি নজরদারি করতে সার্ভিলেন্স কমিটি তৈরি করবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। ঢাকার প্রতিটি এলাকাতেই এই কমিটি গঠন করা হবে। শিগগিরই এলাকাভিত্তিক এই কমিটি মাঠে কাজ শুরু করবে ডিএমপি।  

জানা গেছে, কমিটিতে থাকবেন সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের একজন সদস্য। এছাড়া, একজন করে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, ধর্মীয় নেতা, সাংবাদিক, আইনজীবীসহ কমিউনিটি পুলিশের নেতৃবৃন্দও।  
 
কমিটির কাজ হবে পাড়া মহল্লায় সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের গতিবিধি লক্ষ্য ও নজরদারি করা। এছাড়াও এলাকায় জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস কিংবা মাদকের বিস্তারের সঙ্গে কেউ জড়িত আছেন কিনা সেগুলো দেখা।

এ বিষয়ে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, এলাকায় নতুন কারা আসছেন, কারা মাদক ব্যবসা বা বোমাবাজি করছেন এসব বিষয়ে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবে এই কমিটি। তাদের সহযোগিতার জন্য সম্মানিত নগরবাসীর সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছি।

নজরদারি ছাড়াও সার্ভিলেন্স কমিটির কাজ হবে এলাকার সকল ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করে নিজেদের কাছে রাখা, তথ্যের সত্যতা যাচাই-বাছাই করা। এলাকায় নতুন কেউ আসলে তাদের গতিবিধি লক্ষ্য করা। ব্যাচেলর হিসেবে যারা বাসা ভাড়া নেবে তাদের এবং নতুন ভাড়াটিয়াদের গতিবিধি লক্ষ্য রাখা। পাশাপাশি এলাকায় যুবক-যুবতী ও উঠতি বয়সীদের গতিবিধিও নজরদারি করবে এই কমিটি।
 
কমিটি নিয়মিত, নিরবিচ্ছিন্ন ও নিবিড় তদারকি এবং পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে নির্দেশনা প্রদান ও সেগুলো বাস্তবায়নের কাজ করবে। এছাড়াও এলাকার যেকোনো ঘটনায় জনগণের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা দূর করে জনগনের আস্থা ফিরিরে আনার কাজ করবে।  
 
নতুন এই কমিটি কবে নাগাদ গঠন করা হতে পারে এবিষয়ে জানতে চাইলে ডিএমপির উপ-কমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেসন্স) মো. মারুফ হোসেন সরদার বলেন, কমিটি গঠনের কাজ চলছে। তবে এখনো তা প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।
 
এদিকে, ডিএমপির এ উদ্যোগকে কেউ কেউ সাধুবাদ জানালেও অনেকেই শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। মগবাজারের বাসিন্দা নাজির মোহাম্মদ জানান, এলাকার নিরাপত্তা বিধানের দায়িত্ব দেয়ার আগে দেখতে হবে কমিটিতে কারা রয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, কাদের মতামতের ভিত্তিতে এবং কীভাবে কমিটির সদস্য নির্বাচন করা হবে। এতে কোন রাজনৈতিক দলের নেতারা থাকবেন? কমিটি তৈরির আগে এসব বিষয় অবশ্যই বিবেচনায় রাখতে হবে। যদি অসৎ কেউ ওই কমিটিতে ঢুকে যায় তাহলে হিতে বিপরীত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।  

জেডএম

উপরে