আপডেট : ২৯ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৪৭

শিশু রমজানের ‘নেতিবাচক’ ছবিটি সত্য হলেও ঘটনাটি মিথ্যা!

বিডিটাইমস ডেস্ক
শিশু রমজানের ‘নেতিবাচক’ ছবিটি সত্য হলেও ঘটনাটি মিথ্যা!

সম্প্রতি ফেসবুকে রমজান নামের সাড়ে তিন বছরের এক শিশুর একটি ছবি বেশ আলোড়ন তুলেছে। ঘুরেছে ফেসবুকের ওয়ালে ওয়ালে। একটি হোটেলে প্লেট পরিষ্কার করা ছবিটির ক্যাপসনে জানানো, যে সংসারে মা-বাবাকে সাহায্য করার জন্য, এই বয়সেও সে হোটেলে সকাল থেকে রাত অবধি কাজ করছে।

কিন্তু প্লেট পরিষ্কার করা ছবিটি সত্য হলেও ঘটনাটি মিথ্যা, এ তথ্য উদঘাটন করেছে বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম (বোয়াফ)।

সোমবার ঢাকা মিরপুর-১ এর শাহ আলী মার্কেটে সনির পেছনে সরেজমিন গিয়ে রমজান হোটেলসহ বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে আলোচনা করে সত্য উদঘাটন করতে সক্ষম হন বোয়াফ সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনি জানান, ২৭ মার্চ ফেসবুকের অনেক বন্ধু শিশু রমজানের ছবিটি ইনবক্সে পাঠিয়ে আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইলে, আমি শিশুটির সকল দায়িত্ব গ্রহণ করার কথা লিখে তার বিস্তারিত তথ্য কারো জানা থাকলে আমাকে জানানোর জন্য অনুরোধ করি এবং এক পর্যায়ে তার ঠিকানাও আমি জানতে পারি।

বোয়াফ’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকরামুল হক, কেন্দ্রীয় সদস্য আবদুর রহিমসহ আমরা তিনজনে বাইক যোগে সরেজমিন গিয়ে জানি, শিশুটির বাবা মো. রফিক ও মা আশা বেগম আদর করে শিশু রমজানের নামেই ‘রমজান হোটেল’ শিরোনামে খাবার হোটেল দিয়েছে। তাদের এরকম আরো দুটি খাবার হোটেল রয়েছে।তিনি আরো বলেন, চার বছরের শিশু রমজানের প্লেট নিয়ে খেলা করা অবস্থায় কে বা কারা মোবাইলে ছবি তুলে ফেসবুকে ছড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বর্তমান সরকারকে নিয়ে কটূক্তি করে বিভিন্ন নেতিবাচক স্ট্যাটাস, কমেন্টের মধ্য দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও ষড়যন্ত্র বলে প্রতীয়মান।

ইতোমধ্যেই শিশু রমজানের বাবা মো. রফিক মিরপুর-২ থানায় সাধারণ ডায়েরি (নং-১৯৯৩) করেছেন। এবং বোয়াফ সভাপতি তদন্তে থাকা এসআই ইদ্রিসের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে