আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০১৬ ১৪:১৩

জাপানের একটি মেয়ের জন্য আসতো ট্রেন, শতাব্দীর জন্য আসে বাস

বিডিটাইমস ডেস্ক
জাপানের একটি মেয়ের জন্য আসতো ট্রেন, শতাব্দীর জন্য আসে বাস

জাপানে মাত্র একজন মেয়ের জন্য একটি রেল স্টেশন চালু- এমন গল্প কিছুদিন আগে এসেছে খবরে। এবার বাংলাদেশও সেই একই খবরে মাতোয়ারা।

শতাব্দী নামের দশম শ্রেণীর মেয়ের জন্য রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের শেওড়া বাসস্ট্যান্ডে প্র‌তি‌দিন দাঁড়ি‌য়ে থাকছে বাস।
 
রাজধানী ঢাকা শহরে যেখানে প্রতিদিন গণ পরিবহনের তীব্র সংকট, সেখানে এ দৃশ্য ব্যতিক্রমী হলেও বাস্তবতা হলো মেয়েটি আগে কোনো বাসে দাঁড়িয়ে যেতেও পারতো না। হেঁটে হেঁটে স্কুলে যেতো হতো। দেরি হওয়া আর ক্লাস মিস নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছিলো।

একদিন এনজিও সংস্থা ব্র্যাক তাদের স্কুলে এসে সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে অনুষ্ঠান করেছিলো। সেখানেও একই অভিযোগ করেছিলো, কিন্তু লাভ হয়নি। বি‌শ্বের সবচেয়ে বড় এন‌জিও ব্র্যাক যা পারে‌নি তা পেরে‌ছে শতাব্দী!

রাস্তামন্ত্রীকে পেয়ে গেলো শতাব্দী। যে মন্ত্রী রাস্তা, ব্রিজ আর গাড়ি নিয়েই ব্যস্ত থাকেন। এর চেয়ে উত্তম সুযোগ আর হতে পারে না।

তাই সে মন্ত্রীর সহজ দৃষ্টি কেড়েছিলো সাহসী কণ্ঠে ‘মিনিস্টার ওবায়দুল কাদের, আই হ্যাভ এ কোশ্চেন!

তার ক‌ণ্ঠের এ সাত শব্দ পরবর্তী সব‌কিছু বদলে দেয়। বাস শুধু এখন শতা‌ব্দির জন্য আসে তা নয়, বাস শেওড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে এমইএস পর্যন্ত শুধু ম‌হিলা যাত্রীদের আনা-নেওয়া করছে। চতুর্থ দি‌নে বাস‌টি দিনের শুরুর যাত্রায় সেবা নিয়ে‌ছেন দেড়শো নারী ও শিশু।

এখা‌নেই শেষ নয়! শতাব্দী বলে‌ছি‌লো, সে পাঁচ বছর থেকে স্কুলে যায়, কিন্তু মাত্র পাঁচ কি ছয় বার ম‌হিলা বাস দেখেছে।

মন্ত্রণালয় বিষয়‌টি খোঁজ নিয়ে দেখে এ রুটে আ‌গে আবদুলাহপুর থেকে ম‌তি‌ঝিল পর্যন্ত এক‌টি ম‌হিলা বাস সা‌র্ভিস ছিলো, কিন্তু চলছে না। এরপর তা আবারো ১৫ মার্চ থেকে চালু করে দেন সড়ক প‌রিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

নারী দিবসের ঠিক তি‌ন‌দিন প‌রে নারীক‌ণ্ঠের সাহসী উচ্চারণ জা‌গি‌য়ে দিয়েছে বাংলা‌দেশকে। শতা‌ব্দী নাম‌টি কয়েক‌দিন ধরে সবার মু‌খে মু‌খে ঘুর‌ছে। পুরো নাম তার শামসুন নাহার শতাব্দী। শামসুন শব্দের অর্থ সূর্য্য আর নাহার শব্দের অর্থ আলো অর্থাৎ সূর্যের আ‌লো শত বছর। কিন্তু শত বছর নয় সহস্র বছর এমন আলো চায় বাংলা‌দেশ।

‌রেবেকা খান নামে একজন নারী প্রথম ম‌হিলা বাসে যা‌চ্ছেন তার কর্মস্থল ম‌তি‌ঝিলে। তি‌নি বলেন, অনেক মেয়ে রাস্তায় চলাফেরায় নিরাপত্তা অনুভব করে না বলেই ঘরে বসে আছে, যদি মহিলা সার্ভিস বাস চালু থাকে তাহলে নারীরা বের হবে।

শতাব্দীর প্রশ্নকে সহস্র নারীর ক্ষো‌ভের প্রকাশ যা দশম শ্রেণীর এক‌টির মেয়ে শতাব্দীর ক‌ণ্ঠে উচ্চারিত হয়েছে ব‌লে তি‌নি মনে করেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে