আপডেট : ১০ মার্চ, ২০১৬ ১৭:০৩

প্রিন্স মুসার সম্পদের হিসাবে গোলমাল, মামলা করছেন দুদক

বিডিটাইমস ডেস্ক
প্রিন্স মুসার সম্পদের হিসাবে গোলমাল, মামলা করছেন দুদক

স্বঘোষিত ধনকুবের মুসা বিন শমসের নিজের নামে বিপুল বিত্ত-বৈভবের দাবি করলেও এর স্বপক্ষে প্রমাণ দেখাতে না পারায় মামলা করতে যাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার দুপুরে দুদক সুইস ব্যাংকে ১২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কিংবা বাংলাদেশে ১২০০ বিঘা জমি থাকার সপক্ষে যথাযথ তথ্য দিতে না পারায় মুসার নামে দুদক আইন ২৬ (১) ও (২) ধারায় মামলার অনুমোদন দেয়। দুদকে দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে কেউ মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হলে ৩ বছর কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

এছাড়া বিবরণীতে সম্পদের তথ্য গোপন করলেও মামলা হতে পারে। মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হলে ১০ বছর কারাদণ্ড দেয়ার বিধান রয়েছে। তবে ফরিদপুরে জন্মগ্রহণকারী বিতর্কিত ও তথাকথিত ধনকুবের মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে দুদকে সম্পদের পরিমাণ বাড়িয়ে বলার জন্য।

দুদকে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে মুসা জানিয়েছিলেন সুইজারল্যান্ডের ন্যাশনাল সুইস ব্যাংকে একটি যৌথ অ্যাকাউন্টে ১২ বিলিয়ন ডলার জব্দ রয়েছে। একই ব্যাংকের ভল্টে রয়েছে ৯০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের স্বর্ণালংকার।

এছাড়া দেশের স্থাবর সম্পত্তির মধ্যে রাজধানীর গুলশানের ৮৪ নম্বর রোডে স্ত্রীর নামে বাড়ি, ফরিদপুরের নগরকান্দায় পৈতৃক বাড়ি, গাজীপুর ও সাভারে বিভিন্ন দাগে প্রায় ১২শ’ বিঘা সম্পত্তির তথ্য দাখিল করেছিলেন তিনি।

দুদক বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে সুইস ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে মুসার রক্ষিত অর্থসম্পদের বিষয়ে তথ্য চায়। জবাবে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানায়, মুসার কোনো অ্যাকাউন্ট ওই ব্যাংকে নেই। তার কোনো সম্পদও জব্দ নেই।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে