আপডেট : ৯ মার্চ, ২০১৬ ২২:৫৯

বাম পাশের ইঞ্জিন বিকল হয়ে বিধ্বস্ত হয়েছে বিমানটি

অনলাইন ডেস্ক
বাম পাশের ইঞ্জিন বিকল হয়ে বিধ্বস্ত হয়েছে বিমানটি

৯ মার্চ সকালে কক্সবাজারে একটি কার্গো বিমান বিধ্বস্ত হয়। মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন প্লেনের পাইলটসহ তিনজন। এতে আরো একজন আহত হয়েছেন। জানা যায় বাম পাশের ইঞ্জিন বিকল হয়ে কক্সবাজারে প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়েছে। ট্রু এভিয়েশন লিমিটেড নামে একটি বেসরকারি কোম্পানির প্লেনটির নাম আন্তঃনভো-২৬।

সংস্থাটির লোকাল এরিয়া ম্যানেজার অরূপ অধিকারীর দেয়া তথ্যমতে, কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে ৮১০ বক্স চিংড়ি পোনা নিয়ে প্লেনটি যশোরের উদ্দেশে রওনা হয় সকাল ৯টা ৫ মিনিটে। এটি আকাশে ওড়ার পর ৯টা ১০ মিনিটের দিকে পাইলট তাকে প্লেনের বাম পাশের ইঞ্জিন বিকল হওয়ার বিষয়টি জানান।

তিনি আরো জানান, প্লেনের ডান ও বাম পাশে দু’টি ইঞ্জিন রয়েছে। এর মধ্যে বাম পাশেরটি বিকল হওয়ায় পাইলট জরুরি অবতরণের অনুমতি চান। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ অবতরণের অনুমতিও দেয়। কিন্তু এর মধ্যে সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে প্লেনটি কক্সবাজারের নাজিরারটেক সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে বিধ্বস্ত হয়।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন জানান, এ ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তের পর প্লেন বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ জানা যাবে। কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম হোসেন জানান, এ দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন-পাইলট ক্যাপ্টেন গোফরে ওরফে মুরাদ (৪৮), ফাস্ট অফিসার ইভান ও ফ্লাইট ইঞ্জিনিয়ার আদ্রিদি। আহত হয়েছেন কো-পাইলট পেট্রো ভিবেন ওরফে কূলথানব (৪৫)। তিনি কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।  হতাহত চারজনই রাশিয়ার নাগরিক।

ওসি আরো জানান, ময়নাতদন্ত শেষে তিনজনের মৃতদেহ তাদের দেশে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

উপরে