আপডেট : ৭ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৫৫

দুই মন্ত্রীর বক্তব্যে বিব্রত প্রধানমন্ত্রী

বিডিটাইমস ডেস্ক
দুই মন্ত্রীর বক্তব্যে বিব্রত প্রধানমন্ত্রী

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা নিয়ে দুই মন্ত্রীর বক্তব্য সরকারের নয় বলে মন্ত্রিসভার বৈঠকে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি মন্ত্রিদ্বয়ের নাম উল্লেখ করেননি। যে দুই মন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেছেন, এ সময় ওই দুই মন্ত্রীই সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেছেন, একটি সংগঠনের অনুষ্ঠানে গিয়ে দুজন মন্ত্রী যে ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন, এতে মনে হয় যেন ওই সংগঠনটি সরকারের কোনো সংগঠন এবং এই বক্তব্য যেন সরকারের বক্তব্য। তিনি বৈঠকে স্পষ্ট করেন, মন্ত্রীদের এ ধরনের বক্তব্যে তিনি বিব্রত হয়েছেন, তার সরকারও বিব্রত।

এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে মন্ত্রিসভায় উপস্থিত একাধিক সদস্য সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী দুই মন্ত্রীর বক্তব্য ‘ডিসওন’ করেছেন। মন্ত্রিসভার একাধিক সদস্য বলেছেন, নির্ধারিত আলোচ্যসূচি শেষে দুই মন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে আলোচনার সূত্রপাত করেন শেখ হাসিনা। এই আলোচনায় তিনি কারও নাম উল্লেখ করেননি।

গত শনিবার একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির এক অনুষ্ঠানে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম প্রধান বিচারপতিকে বাদ দিয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধী মীর কাসেম আলীর আপিলের পুনঃশুনানি করার দাবি জানান। তিনি এই মামলার শুনানি নিয়ে প্রধান বিচারপতির বিভিন্ন বক্তব্যের সমালোচনাও করেন। অন্যদিকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ দাবি করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যদি কেউ এ ধরনের বক্তব্য দিতে চান, তাহলে রাস্তায় গিয়ে দেন। মন্ত্রিসভার সদস্য হয়ে বক্তব্য দেয়ার সুযোগ পেলেই যা খুশি বলবেন এবং যেকানো সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানে গিয়ে কথা বলছেন, এটা ঠিক নয়।

বিডিটাইমস২৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে