আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০৯:৪৬

তিন মন্ত্রণালয়ে সাত বিভাগ হচ্ছে

বিডিটাইমস ডেস্ক
তিন মন্ত্রণালয়ে সাত বিভাগ হচ্ছে

সরকারের গুরুত্বপূর্ণ তিনটি মন্ত্রণালয়কে সাতটি বিভাগে ভাগ করা হচ্ছে। এর মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ভাগ হচ্ছে জননিরাপত্তা বিভাগ ও অভ্যন্তরীণ সুরক্ষা সেবা বিভাগে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও দুই ভাগ হচ্ছে—স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ এবং স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ। শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে উচ্চশিক্ষা বিভাগ, মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ নামে তিনটি বিভাগে ভাগ করা হচ্ছে। কাজের ব্যাপকতা ও গুরুত্ব বিবেচনায় নিয়ে মন্ত্রণালয়গুলো ভাগ করা হচ্ছে বলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অনুশাসনপত্রে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন পাওয়ার পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ইতিমধ্যে মন্ত্রণালয়গুলো পুনর্গঠনের কাজও শুরু করে দিয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের অধীনে থাকবে বাংলাদেশ  পুলিশ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, বাংলাদেশ কোস্টগার্ড এবং তদন্ত সংস্থা আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালস। অভ্যন্তরীণ সুরক্ষা সেবা বিভাগের অধীনে যেসব সংস্থা থাকবে সেগুলো হলো বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর, কারা অধিদপ্তর, বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এবং ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অধীনে থাকবে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, সেবা পরিদপ্তর, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট, নিমিউ অ্যান্ড টিসি এবং টেমো। স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অধীনে থাকবে মেডিক্যাল কলেজ, মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিশেষায়িত চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান। এ ছাড়া নার্সিং কলেজ ও নার্সিং ইনস্টিটিউট, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর, জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কাউন্সিল, বাংলাদেশ নার্সিং কাউন্সিল, ইউনানি, আয়ুর্বেদিক ও হোমিওপ্যাথ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উচ্চশিক্ষা বিভাগের অধীনে থাকবে বিশ্ববিদ্যালয় এবং মাস্টার্স, অনার্স ও ডিগ্রি কলেজ। মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের অধীনে থাকছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্যায়ের পর থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত। কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অধীনে থাকবে সব ধরনের কারিগরি, ভোকেশনাল ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড।

এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দুই বিভাগে ভাগ করার প্রস্তাব মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়। এ-সংক্রান্ত প্রস্তাবটি নিষ্পত্তি না করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে তিনটি মন্ত্রণালয়কে সাতটি বিভাগে ভাগ করার অনুশাসন দেওয়া হয়েছে। গত মাসে অনুষ্ঠিত পুলিশ সপ্তাহে পুলিশ কর্মকর্তারা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দুই ভাগ করে পুলিশ অধিদপ্তরকে বিভাগে উন্নীত করার দাবি জানিয়েছিলেন। তাঁদের ওই দাবির পরপরই বিভিন্ন মন্ত্রণালয়কে বিভাগে ভাগ করার কাজে গতি আসে।

বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনার প্রস্তাব অনেক দিনের। এর পরও প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনে এ বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের যুক্তি হলো ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স দুর্যোগ মোকাবিলার কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। অথচ দুর্যোগের সময় এ বাহিনীকে কাজে নামাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিতে হয়। দুর্যোগ মোকাবিলার কাজটি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগকে সমন্বয় করতে হয় বলে ফায়ার সার্ভিসকে তাদের অধীনে ন্যস্ত করার দাবি ছিল। এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের মধ্যে চিঠিপত্র আদান-প্রদান হলেও বিষয়টিতে কোনো অগ্রগতি নেই।

প্রশাসনিক সংস্কারের অংশ হিসেবে এসব মন্ত্রণালয়কে ভাগ করা হচ্ছে। প্রতিটি বিভাগের জন্য আলাদা সচিব নিয়োগ করা হবে। তবে প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ করে মন্ত্রণালয়ের পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব ভাগাভাগি করা হবে কি না, তা নির্ভর করছে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ওপর। মন্ত্রণালয়গুলো বিভিন্ন বিভাগে বিভক্ত করার আনুষ্ঠানিক সুপারিশ আসবে প্রশাসনিক উন্নয়নসংক্রান্ত সচিব কমিটি থেকে। সচিব কমিটির সুপারিশ নিয়ে এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

বর্তমানে ৪৫টি মন্ত্রণালয়ে ৭৫ জন সচিব রয়েছেন। এর মধ্যে আটটি মন্ত্রণালয়ের একাধিক বিভাগ রয়েছে। প্রতিটি বিভাগের দায়িত্বে রয়েছেন আলাদা আলাদা সচিব। এ ক্ষেত্রে সাংগঠনিক কাঠামোও আলাদা। এরই মধ্যে আরো তিনটি মন্ত্রণালয়ে সাতটি বিভাগ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

১৯৭২ সালে শিক্ষা, ধর্ম, খেলাধুলা ও সংস্কৃতিবিষয়ক যে মন্ত্রণালয় গঠন করা হয়েছিল, ১৯৯৩ সালের আগস্ট মাসে সেখান থেকে স্বতন্ত্র শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা পায়। মুক্তিযুদ্ধকালে ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল মুজিবনগরে অস্থায়ী সরকার গঠনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সরকারের যাত্রা শুরুর সঙ্গে সঙ্গে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যাত্রা শুরু হয়। এখনো পর্যন্ত একজন সচিবই এ মন্ত্রণালয় দেখভাল করছেন। যদিও সচিবের পদমর্যাদা বেড়ে সিনিয়র সচিব হয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

 

উপরে