আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০৯:৩৮

রোগীদের জন্য পাসপোর্ট অফিসের ‘বিশেষ সেবা’

বিডিটাইমস ডেস্ক
রোগীদের জন্য পাসপোর্ট অফিসের ‘বিশেষ সেবা’

জটিল কোন রোগে আক্রান্ত হয়ে যাওয়া অনেক রোগীকে খুব দ্রুত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে কোথাও নিয়ে চায় পরিবার। কিন্তু রোগীর ‍যদি আগে পাসপোর্ট করা না থাকে তাহলেই বাধে বিপত্তি। জরুরী ভিত্তিতে পাসপোর্ট করতে গেলেও কোন কোন ক্ষেত্রে একমাস পর্যন্ত লেগে যায়।

এবার হাসপাতালে চিকিৎসারত রোগীদের জন্য উন্নত চিকিৎসায় বিদেশে নিতে দ্রুত পাসপোর্ট দিচ্ছে বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস। এক্ষেত্রে রোগী যদি পাসাপোর্ট অফিসে আসতে পারেন তাহলে এখানেই আলাদা কাউন্টারের মাধ্যমে দেওয়া হবে। আবার যেসব রোগী পাসপোর্ট অফিসে যেতে অক্ষম তাদের জন্য পাসপোট অফিসের মোবাইল টিম হাসপাতালে গিয়েই তথ্য সংগ্রহ করে আনবে।
শুধুমাত্র রোগীদের ক্ষেত্রে এ রকম যখন তখন পাসপোর্ট দিচ্ছে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বিভাগীয় পাসপোট ও ভিসা অফিস।  ঢাকার বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের পরিচালক এ টি এম আবু আসাদ জানান, রোগীর যাবতীয় কাগজপত্র পাসপোর্ট অফিসের আলাদা কাউন্টারে গ্রহণ করার পরই রোগীর স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে হাসপাতালে গিয়ে ফিঙ্গার প্রিন্টসহ অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করে নিয়ে আসা হয়। এরপর পুলিশ রিপোর্ট পাওয়ার সপ্তাহখানেকের মধ্যে পাসপোর্ট দিতে সক্ষম হয় পাসপোর্ট অফিস।
পরিচালক আরও জানান, রোগীর আবেদন পাওয়া মাত্রই যখন তখন তারা সাড়া দিচ্ছেন। দিনে দু’একজন রোগী এভাবে আবেদন করছেন। এজন্য পাসপোর্ট অফিসের আলাদা মোবাইল টিম সক্রিয় রয়েছে। অনেকেই আসেন রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ নিতে পাসপোট তৈরি করতে। কিন্তু সহজ পদ্ধতিটি না জানা থাকায় দীর্ঘ সময় ও ভোগান্তিতে পড়েন তারা।
পাসপোর্ট অফিস পরিচালক জানান, কেবলমাত্র রোগীর ক্ষেত্রে বিশেষভাবে এ সেবা দিচ্ছেন তারা, অন্য কোনো ক্ষেত্রে নয়।

উপরে