আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:০১

হুমায়ূন আহমেদকে অশ্লীলভাবে ব্যবহার করছে একটি নিউজ পোর্টাল

বিডিটাইমস ডেস্ক
হুমায়ূন আহমেদকে অশ্লীলভাবে ব্যবহার করছে একটি নিউজ পোর্টাল

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের নামে একটি ফেসবুক পেজ খুলে ছড়ানো হচ্ছে অশ্লীলতা।পেজটিতে লেখককে নিয়ে তেমন সম্মানজনক বা ভক্তদের পছন্দের কিছু পাওয়া না গেলেও অখ্যাত একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের অতি অশ্লীল কিছু পোস্ট একের পর এক শেয়ার দেওয়া হয়েছে পেজে।

পেজটিতে অনলাইন পোর্টালের লিংক দেওয়া হচ্ছে, সে পোর্টালের কর্তৃপক্ষই এ কুরুচিপূর্ণ কাজে জড়িত। কারণটিও অনেকের কাছে সহজে অনুমেয়, হুমায়ূন আহমেদের পেজ ভেবে এখানে লাইক দিয়ে এসব লিংক পাওয়া যাবে, অনেকেই ক্লিক করবেন। আর এভাবেই কুরুচিপূর্ণ পোর্টালটির হিট বাড়বে।

নিউজ পোর্টালের হিট বাড়াতে এমন একজন লেখককে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ আচরণ ক্ষুব্ধ হচ্ছেন লেখকের ভক্তরা।

‘অফিসিয়াল পেজ’ দাবিকারী পেজটির প্রোফাইল পিকচারে ব্লু সাইনও দেখা গেছে। ফেসবুক ভেরিফায়েড ধরে নিয়ে হুমায়ূনের অফিসিয়াল আইডি হিসেবেই এতে ‘লাইক’ দিচ্ছেন ভক্তরা। এভাবে প্রতিদিন দ্রুতহারে বাড়ছে পেজের ফলোয়ার সংখ্যা।

ফেব্রুয়ারির পুরো মাসজুড়ে বইমেলা চললেও পেজটিতে সে সম্পর্কিত কোনো পোস্ট দেখা যায়নি। তার কোনো বই, চলচ্চিত্র, নাটক নিয়ে নেই তথ্যমূলক কিছুই।

দেখা গেছে, এ পেজটি পছন্দ করেছেন ১ লাখ ৩১ হাজার ১৮৯ জন। কভার ফটোতে হুমায়ূন আহমেদের দ্বিতীয় স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওনের সঙ্গে তার বিয়ের একটি ছবি দেওয়া হয়েছে। আইডি’র অ্যাবাউটে গিয়ে দেখা গেছে, ২০১৫ সালের অক্টোবরে পেজটির কার্যক্রম শুরু। ঠিকানা দেওয়া হয়েছে রাজধানীর ধানমন্ডির।
সরল মনে এ পেজে যারা লাইক দিয়েছেন, তারা বিব্রত হচ্ছেন এমন সব পোস্ট দেখে। বিভিন্ন পোস্টের মন্তব্যগুলোতে অনেকের প্রতিবাদ চোখে পড়েছে।

অশ্লীল পোস্টগুলো দেখে হুমায়ূনের ভক্তরা ক্ষুব্ধ হচ্ছেন, অ্যাডমিনকে গালমন্দ করছেন। কেউ কেউ ‘আনফলো’ করছেন। তারা বলছেন, অন্তত হুমায়ূন আহমেদের নামে পেজ খুলে এমন পোস্ট দিয়ে লাইক বাগানোর ধান্দা যেন না করা হয়।

কেউ কেউ শঙ্কিত কমবয়সীদের নিয়ে। অনেক অপ্রাপ্তবয়স্কই এ পেজের ফলোয়ার। তাই সহজেই তারা এ পোস্টগুলো পাচ্ছেন। 

খুব শিগগির প্রিয় লেখকের নাম ব্যবহার করে এমন অশ্লীলতা বন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন হুমায়ন ভক্তরা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে    

 

উপরে