আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২২:৫২

একুশে গ্রন্থমেলার সর্বত্র ভেজা বই শুকানোর চিত্র

বিডিটাইমস ডেস্ক
একুশে গ্রন্থমেলার সর্বত্র  ভেজা বই শুকানোর চিত্র

অমর একুশে গ্রন্থমেলার সর্বত্র আজ ভেজা বই শুকানোর চিত্র দেখা গেছে। অধিকাংশ স্টলের সামনেই প্রকাশক ও বিক্রেতারা প্লাস্টিকের ত্রিপল বিছিয়ে নিজ স্টলের বই শুকাতে দিয়েছেন।

গতকাল বুধবার দুপুরে ঝড়ো হাওয়া ও শিলাবৃষ্টির মত প্রাকৃতিক দুর্যোগে এসব বই ভিজে যায়। মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে এবং প্রকাশক ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শতাধিক স্টলের ক্ষয়ক্ষতির পরিমান খুব বেশি।

এ্যাডর্ন পাবলিবেশনের সত্ত্বাধিকারী সৈয়দ জাকির হুসাইন জানান, যাদের স্টলের চারদিকই খোলা, তাদের ক্ষয়ক্ষতির পরিমান বেশি। তার স্টলের চারদিক খোলা হওয়ায় ঝড়ো হাওয়া ও শিলাবৃষ্টি প্রতিরোধ করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। এতে তার পাঁচ শতাধিক বই ভিজে যায়। আনুমানিক ক্ষতি লক্ষাধিক টাকা বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, শুধু আমাদেরই নয়, ইউপিএল, অন্যপ্রকাশ, আগামী, অবসর, বেঙ্গল ফাউন্ডেশন, হাসি, অয়ন, পানগুছি, ঐশী, নন্দিতা, মুক্তচিন্তা, ইলমা, দেশ, গ্রন্থকাননসহ প্রভৃতি স্টলের দুই থেকে তিন শতাধিক করে বই জলে-কাঁদায় ভিজে নষ্ট হয়েছে।
 

এ্যাডর্নের পাবলিশার্স আরো বলেন, গতকালের প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে আজ সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার হওয়া সত্ত্বেও মেলায় তেমন লোক সমাগম ঘটেনি।
অনিন্দ্য প্রকাশনীর সত্ত্বাধিকারী আফজাল হোসেন বলেন, গতকাল দেরিতে মেলা খুললেও লোক সমাগম ভাল হয়েছিল।

আধা ঘন্টার জন্য মেলা খুললেও তার স্টলে ১০ হাজার টাকা বিক্রি হয়েছে। মেলা আয়োজক সংস্থা বাংলা একাডেমি বিদ্যুত ব্যবস্থা স্বাভাবিক রেখে মেলা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত খোলা রাখলে বিক্রি অন্যান্য দিনের চেয়ে আরো বেশি হতো। তার স্টলে তেমন বেশি ক্ষতি হয়নি বলেও তিনি জানান।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আইএম

 

 

উপরে