আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৬:১৫
অস্ট্রোলিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশী ছাত্র নিহত, আহত এক

গাড়ীর স্পিডের নেশায় উচ্চ শিক্ষা আর হলোনা, করুণ পরিণতি মৃত্যুতে!

বিডিটাইমস ডেস্ক
গাড়ীর স্পিডের নেশায় উচ্চ শিক্ষা আর হলোনা, করুণ পরিণতি মৃত্যুতে!

ইচ্ছা ছিল উচ্চ শিক্ষা শেষ করে খুব শিগগির দেশে ফিরবেন। বাড়িতে ফিরেই ছোট্ট বোনের একটি সাইকেকের আবদার মেটাবেন।সংসারের হাল ধরে হাসি ফোটাবেন মা-বাবার মুখে।

কিন্তু কিছুই করা হল না উৎসের। আস্ট্রোলিয়ায় এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যু হয় এস এম সাকলিন হাসান উৎসের। শুধু সে নয় তার এক বন্ধুরও মৃত্যু হয় ওই দূর্ঘটনায়, আরেক বন্ধু পাঞ্জা লড়ছেন মৃত্যুর সঙ্গে।

সিডনির মেলবোর্নে স্থানীয় সময় বুধবার ভোর ৫ দিকে দিকে এ মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, এস এম সাকলিন হাসান উৎস, ফাহিম রহমান অনিক, রিফাত মোস্তফা তিন বন্ধু গাড়িতে করে বাসায় ফিরছিলেন।এসময় তাদের প্রাইভেট কারটি হঠাৎ করে একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে।

ঘটনাস্থলেই ফাহিম রহমান অনিকের এবং হাসপাতালে নেয়ার পথে উৎসে মৃত্যু হয়। এদিকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালের আইসিইউতে আছেন রিফাত মোস্তফা।

কি কারণে এই দূর্ঘটনা ঘটেছে তা সঠিক জানা না গেলে মেলবোর্নের পুলিশের ধারণা অতিরিক্ত গতি বা গাড়ীর যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এই দূর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এদিকে অনিকের বাড়ী ময়মনসিংহে ও উৎসের বাড়ী বরিশালে আদরের সন্তান হারানোর বেদনায় চলছে শোকের মাতম।

উৎসের বাবা এস এম হাসান সন্তানের লাশ দেশে ফেরত আনতে সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন।

এদিকে ময়না তদন্ত শেষে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নিহতদের লাশ দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে অস্ট্রোলিয়ার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।সূত্রঃ যমুনা টিভির প্রতিবেদন।  

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে    

 

উপরে