আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:৫০

সবার মিললেও ছুটি নেই সাংবাদিক আর পুলিশের

বিডিটাইমস ডেস্ক
সবার মিললেও ছুটি নেই সাংবাদিক আর পুলিশের

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে প্রায় সব পেশাজীবী ছুটি কাটালেও ছুটি নেই গণমাধ্যমকর্মী ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। তারা দায়িত্বের ভেতর দিয়েই তাদের দেশপ্রেম প্রকাশ করেন। ভাষা দিবসের সকাল থেকে চোখে পড়ে এমন কিছু দৃশ্য।

এই সমস্ত দিবসে যখন সবাই এক সঙ্গে স্বজনদের সাথে আনন্দ করলেও নিরাপত্তারক্ষী, চিকিৎসক ও গণমাধ্যমকর্মীদের বেশিরভাগেরই নেই ছুটি। তারপরও হাসিমুখে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করছে তারা। এই দিনে অফিস, আদালত ,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সবই বন্ধ থাকে। তাই কর্মব্যস্ততা নেই বললেই চলে। কিন্তু বরাবরাই ব্যতিক্রম তারা। তারপরেও হাসিমুখে কাজ করেন। কষ্ট বা বেদোনা অনেক। সাত্বনা তাদের চাকরির ধরন বা দায়িত্ব কর্তব্যটাই এরকম।

মানিকগঞ্জ ঘিওর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) কবিরুল হক রোববার সকালে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে অটোরিক্সাসহ বিভিন্ন যানবাহনে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে দিচ্ছেন। ফেসবুক স্ট্যাটাসে এমন একটি ছবি দেখা গেছে। এ বিষয়ে তিনি বলেন “স্বদেশপ্রেমে সবাইকে জাগিয়ে তুলতেই আমার এ উদ্যেগ। বিশেষ কোনো দিন এলেই, সাধ্যমতো আমি চেষ্টা করি আশপাশের মানুষকে জাতীয় পতাকা উপহার দিতে।”

ছুটির দিনেও কর্মব্যস্ত গুলশান থানা এসআই আলমগীর কবীর  জানান, “ছুটির দিনগুলোতে অন্যান্য দিনের চেয়ে এ দিনে তিন-চার ঘণ্টা বেশি দায়িত্ব পালন করতে হয়। তবে এরপরও আমাদের মাঝে কোনো ক্লান্তি নেই। কারণ দায়িত্বই আমাদের দেশপ্রেম।”

এদিকে ভাষা দিবসে রাজধানীর নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছে ২০ হাজার পুলিশ সদস্য। এর মধ্যে জাতীয় শহিদ মিনারে রয়েছে আট হাজার পুলিশ। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন নির্বিঘ্নে করতে একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহর থেকে কেন্দ্রীয় শহিদ  মিনার এলাকার নিরাপত্তায় পুলিশের পাশাপাশি তিন ব্যাটালিয়ন ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে