আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২১:৪৫

১০,০০০ কোটি টাকার মামলা মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে

বিডিটাইমস ডেস্ক
১০,০০০ কোটি টাকার মামলা মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে

সম্প্রতি টেলিভিশনে এক আলোচনায় ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেন, ২০০৭-০৮ সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় সেনা গোয়েন্দাদের দেওয়া বিভিন্ন তথ্য যাচাই না করেই তারা ছেপেছিলেন। মাহফুজ আনাম বলেন, তার এই সিদ্ধান্ত ভুল ছিল এবং এজন্য তিনি দু:খিত।

এ স্বীকারোক্তির পরপরেই ডজনখানেক মানহানির মামলার শিকার হয়েছেন তিনি। ১০টি মানহানির মামলায় কয়েক হাজার কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে। ২০০৭-০৮ সালে সেনা সমর্থিত সরকারের সময় ছাপা খবরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মানহানির অভিযোগে ঢাকা, সিলেট, রাঙামাটি, শরিয়তপুর সহ মোট ন’টি জেলায় এই মামলাগুলো হয়েছে।
এগুলোর মধ্যে, ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে করা একটি মামলায় ১০,০০০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে বলে ডেইলি স্টারের একটি সূত্র বিবিসিকে জানিয়েছেন। মামলাটি করেছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রজন্ম লীগের একজন নেতা। পূর্বাঞ্চলীয় বিভাগীয় শহর সিলেটের দুই ছাত্রলীগ নেতার করা দুটো মামলায় ২০০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।
মামলাকারীদের একজন আওয়ামী লীগ সমর্থিত এই ছাত্র সংগঠনের সিলেট মহানগর সমিতির প্রেসিডেন্ট আব্দুল বাসিত রুম্মন। বাদীদের অন্যজন স্থানীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার।
দুটো মামলাই হয়েছে সিলেট চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। স্থানীয় সাংবাদিক আহমেদ নূর জানিয়েছেন, মামলা দুটো গ্রহণ করে আদালত সমন জারী করেছে অর্থাৎ মাহফুজ আনামকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।
এর আগে গত সপ্তাহে খুলনা এবং লক্ষ্মীপুরেও মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে একই ধরণের দুটো মামলা হয়েছে। ঐ মামলা দুটোও করেন স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতারা।
 

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ডেইলি স্টার সহ বিভিন্ন মিডিয়াতে শেখ হাসিনা, খালেদা জিয়া সহ অনেক শীর্ষস্থানীয় অনেক রাজনীতিকদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির বিভিন্ন অভিযোগের খবর ছাপা হয়েছিল। সেনাবাহিনী রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে এসব খবর সরবরাহ করতো বলে বিতর্ক রয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে 

 

উপরে