আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০১:১০

বসন্ত এসে গেছে!

বিডিটাইমস ডেস্ক
বসন্ত এসে গেছে!

ফাগুনের আগুনে পুড়ে যাবে ‘পলাশ গাছ’। অসমাপ্ত কবিতাটা পাবে শেষ দাড়িটার সন্ধান। এই বসন্তেই খোলসের আবরণ ছেড়ে বেড়িয়ে আসবে তুলতুলে পাখি ছানারাও! ফুলে ফুলে ঢলে ঢলে ভোর বেলায় বাড়ি ফিরে যাবে মাতাল ভ্রমর।

ফুলের সৌরভ ছড়াতে আবার এসেছে মাতাল বসন্ত। ফাল্গুনের হাওয়া দোল লেগেছে প্রকৃতিতে। নতুনরূপে সেজেছে ঋতুরাজ।

দখিনা হাওয়া, মৌমাছিদের গুঞ্জণ, কচি-কিশলয় আর কোকিলের কুহুতানে জেগে ওঠার দিন আজই ।

শীতের রিক্ততা মুছে প্রকৃতিজুড়ে দেখা দেবে নবযৌবনের ঢেউ। পড়বে সাজসাজ রব। অপরূপ সৌন্দর্যে ফুটে উঠবে প্রকৃতি। বসন্ত মানেই নতুন প্রাণের সঞ্চার। কচি পাতায় আলোর নাচনের মতোই বাঙালি তরুণ-তরুণীদের মনে লাগে ফাগুনের দোলা। তাই তো বসন্তের পহেলা দিনে ব্যক্তিগত পর্যায়ের নানা আয়োজনে আলোড়িত হবে ঢাকা।

বর্ণিল পোশাক আর ফুলের বর্ণচ্ছটা গায়ে মাখিয়ে তরুণ-তরুণীরা বইমেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, চারুকলার বকুলতলা মাতিয়ে রাখবে। ভেসে যাবে তরুণ উচ্ছ্বাসে! সে উচ্ছ্বাস চলবে দিনমান।

বিগত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় জাতীয় বসন্ত উৎসব উদযাপন পরিষদ বসন্ত উৎসব আয়োজন করেছে এবারও। সকাল ৭টায় চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় যন্ত্রসংগীতের মূর্ছনার মধ্য দিয়ে শুরু হবে বসন্ত আবাহন। চলবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। সেখানেই আবার বিকেল ৪টা থেকে শুরু হয়ে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে বসন্ত বন্দনার উৎসব।

শুভেচ্ছা সতত।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে