আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১২:৩২

শাহজালালে বিমানযাত্রীর মলের সঙ্গে বের হলো ৯টি সোনার বার!

অনলাইন ডেস্ক
শাহজালালে বিমানযাত্রীর মলের সঙ্গে বের হলো ৯টি সোনার বার!

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আটক এক যাত্রীর পেট থেকে নয়টি সোনার বার বের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (০৯ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ‘বিশেষ কৌশলে’ ওই যাত্রীর পায়ুপথ দিয়ে এসব বার বের করেন শুল্ক গোয়েন্দারা।

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে আসা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী একটি বিমানে গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় বাংলাদেশে আসেন রোমান তালুকদার নামের এক যাত্রী। আনুষঙ্গিক কাজ শেষ করে বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল দিয়ে বাইরে বের হওয়ার সময় তাঁকে দেখে সন্দেহ হয় শুল্ক বিভাগের গোয়েন্দাদের। এ সময় রোমানকে চ্যালেঞ্জ করেন কর্মকর্তারা।

শুল্ক তদন্ত ও গোয়েন্দা বিভাগের মহাপরিচালক ড. মঈনুল খান জানান, ধাতব বস্তু শনাক্তকরণ ক্ষমতাসম্পন্ন বিশেষ দরজা দিয়ে রোমানকে প্রবেশ করালে তাঁর শরীরে ধাতব বস্তুর সন্ধান পাওয়া যায়। এ সময় গোয়েন্দারা ধারণা করেন, এই ধাতব বস্তু ওই যাত্রীর শরীরের ভেতরে লুকানো আছে।

তবে শুরু থেকেই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন রোমান নামের ওই যাত্রী। সন্দেহের ভিত্তিতে তাঁকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান শুল্ক গোয়েন্দারা। সেখানে এক্স-রে পরীক্ষার মাধ্যমে তাঁর পাকস্থলীর ভেতরে সোনার বারের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়।

পরে রোমান তালুকদারকে আবারো বিমানবন্দরে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে যায় শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। সেখানে বিশেষ পদ্ধতি ব্যবহার করে তাঁর পায়ুপথ দিয়ে একে একে বের করা হয় নয়টি সোনার বার।

সোনার বার উদ্ধারের এ ঘটনাকে বেশ বিরল বলে মন্তব্য করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত বিভাগের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জাকারিয়া।

জব্দকৃত প্রতিটি বারের ওজন ১'শ গ্রাম করে। আর এই বারগুলোর মূল্য আনুমানিক ৪৫ লাখটাকা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে