আপডেট : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২০:৫৪

ট্রাফিক পুলিশের নির্যাতনের স্বীকার ভ্যানচালক

বিডিটাইমস ডেস্ক
ট্রাফিক পুলিশের নির্যাতনের স্বীকার ভ্যানচালক

খুলনায় ট্রাফিক পুলিশের নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন ওবায়দুল ইসলাম (২০) নামের এক ভ্যানচালক।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে নগরের লোয়ার যশোর সড়কের সংগীতা হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনকারী ট্রাফিক পুলিশ হচ্ছেন সহকারী নগর উপপরিদর্শক (অ্যাসিস্ট্যান্ট টাউন সাব-ইন্সপেক্টর) মনির হোসেন। ঘটনার পর তাকে খুলনা পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, রায়েরমহল এলাকা থেকে তিনি, ওবায়দুল ও সাগর তিনটি ব্যাটারিচালিত ভ্যানে চাল নিয়ে বড় বাজার এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। বেলা ১১টার দিকে তাঁরা সংগীতা হলের কাছে পৌঁছালে ট্রাফিক পুলিশ মনির হোসেন তাঁদের গতিরোধ করে তিন হাজার টাকা দাবি করেন। তারা তিনজন ওই পুলিশকে ১৫০ টাকা দিতে রাজি হলেও তিনি তা না নিয়ে ভ্যানের ব্যাটারির সংযোগ কেটে দিতে উদ্যত হয়।

এ সময় ওবায়দুল পুলিশের পা জড়িয়ে ধরলে তাঁকে প্রথমে থাপ্পড় মারেন ওই ট্রাফিক পুলিশ। পরে ওই পুলিশ হাতে থাকা প্লায়ার্স দিয়ে ওবায়দুলের মাথায় আঘাত করেন। এতে ওবায়দুলের মাথা ফেটে রক্ত পড়তে থাকে। এ ঘটনায় স্থানীয় জনতা উত্তেজিত হয়ে ওই ট্রাফিক পুলিশকে ঘিরে রাখে। পরে ট্রাফিক পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করেন।
 

পরিস্থিতি সামাল দিতে না পারার অভিযোগে মনির হোসেনকে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা মিললে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে ট্রাফিক পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকমা/আরকে  

উপরে