আপডেট : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:২৫

দলীয়করণের মাধ্যমে বিচারক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে : ড.কামাল

বিডিটাইমস ডেস্ক
দলীয়করণের মাধ্যমে বিচারক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে  : ড.কামাল

সংবিধানপ্রণেতাদের অন্যতম ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল বলেছেন,‌ আজ সংবিধানের অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। দেশের সর্বোচ্চ বিচার বিভাগীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিচারক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে দলীয়করণের মাধ্যমে। বাংলাদেশে কোনোদিন রাজতন্ত্র কায়েম হতে পারে না। এ দেশের সংবিধানের জন্য অনেক মূল্য দিতে হয়েছে। আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বেসরকারি মানবাধিকার সংস্থা সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) আয়োজিত বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ও কার্যকারিতা নিশ্চিতের লক্ষ্যে করণীয় শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচনে তিন শ আসন পেলেও অযোগ্য কোনো লোককে বিচার বিভাগে নিয়োগ দিতে পারে না। একটি দেশের বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করতে না পারলে সে দেশের সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায় না। গোলটেবিল বৈঠকে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সংবিধান বিশেষজ্ঞ ও সুজনের নির্বাহী সদস্য ড. শাহদীন মালিক। এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল বলেন, যে মুহূর্তে আমরা বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিয়ে কথা বলছি সেই মূহর্তে এ দেশে স্বাধীনভাবে কথা বলার অধিকারটুকু নেই।

তিনি বলেন, একজন বিচারপতি অবসর নেওয়ার পর প্রধান বিচারপতি সম্পর্কে কথা বলছেন তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা হচ্ছে না। সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) সাখাওয়াত হোসেন বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থার সাথে বিচার ব্যবস্থা ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বর্তমান বিচার ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন দরকার উল্লেখ করে বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, যে বিচার ব্যবস্থা আমাদের দেশে প্রচলিত আছে সেখানে শুধু ক্ষমতাসীনরা সুবিধা পেয়ে থাকে, আর দুর্বলরা অবহেলিত হয়ে থাকে।

 

বিডিটআমিইমস৩৬৫ডটকম/ আইএম

উপরে