আপডেট : ২৭ জানুয়ারী, ২০১৬ ২০:১০

বান্ধবীসহ আটকে রেখে টাকা আদায়: তিন পুলিশ বরখাস্ত

বিডিটাইমস ডেস্ক
বান্ধবীসহ আটকে রেখে টাকা আদায়: তিন পুলিশ বরখাস্ত

রাজধানীর উত্তরায় বান্ধবীসহ এক তরুণ ব্যবসায়ীকে রাতভর আটক রেখে আড়াই লাখ টাকার উৎকোচ আদায়ের অভিযোগে উত্তরা পশ্চিম থানার এক এসআইসহ তিন পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

রোববার গভীর রাতের ওই ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার পর গতকাল পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার বিধান চন্দ্র ত্রিপুরা দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ এক কনস্টেবলকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। তারা হলেন- এসআই আবদুর রউফ বাহাদুর, এএসআই ফারুক আহমেদ ও কনস্টেবল গোলাম মোস্তফা।

ভূক্তভোগী ওই তরুণ ব্যবসায়ী জানান, গত শনিবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে তিনি তার বান্ধবীকে বাসায় পৌঁছে দেয়ার জন্য একটি সিএনজি অটোরিকশায় উত্তরা ৯নং সেক্টর দিয়ে যাচ্ছিলেন। পথে টহল পুলিশ তাদের সিএনজি অটোরিকশাটি থামিয়ে তল্লাশি করে।

এ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করে দু’জনের মধ্যে স্বামী-স্ত্রী সম্পর্ক না থাকার জন্য পুলিশ তাদেরকে গাড়িতে তোলে। পরে এসআই আব্দুর রউফ বাহাদুর তাদের অভিভাবকদেরকে বিষয়টি জানিয়ে দেয়ার হুমকি দেন। পরে তিনি নিজেই (ব্যবসায়ী) বিষয়টি অভিভাবককে জানানোর জন্য অনুরোধ করে। তখন ঐ পুলিশ কর্মকর্তা তার বান্ধবীর বিরুদ্ধে পতিতাবৃত্তির অভিযোগ এনে তাদের কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা দাবি করেন।

তিনি আরো জানান, রাত ১২টা থেকে ভোর পর্যন্ত তাদেরকে পুলিশের গাড়িতে বসিয়ে রাখে এবং বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেয় ওই কর্মকর্তাসহ অন্যরা। এক পর্যায়ে ভোরের দিকে তিনি এক বন্ধুকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানান। পরে সকালে ঐ বন্ধু আড়াই লাখ টাকা এনে পুলিশকে দেয়ার পর তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

ছাড়া পাওয়ার পর তিনি এ বিষয়ে পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপ-কমিশনারের কাছে অভিযোগ করেন।

উত্তরা বিভাগের উপ-কমিশনার বিষয়টি তদন্ত করার পর প্রাথমিকভাবে তাদের তাদের সাময়িক বরখাস্ত করেন। 

এ বিষয়ে মহানগর পুলিশের (মিডিয়া) উপ-কমিশনার মারুফ হাসান সরদার মানবকণ্ঠকে বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর উত্তরা পশ্চিম থানার তিন পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/পিএম

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

উপরে