আপডেট : ২০ জানুয়ারী, ২০১৬ ১১:০৬

অবসর ভাতা বাড়ছে রাষ্ট্রপতির,পাবেন না অবৈধরা

অনলাইন ডেস্ক
অবসর ভাতা বাড়ছে রাষ্ট্রপতির,পাবেন না অবৈধরা

দশম জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশনেই পাস হচ্ছে রাষ্ট্রপতির অবসরভাতা, আনুতোষিক ও অন্যান্য সুবিধা আইন-২০১৬। এরমধ্যে দিয়ে বৈধ রাষ্ট্রপতিরা অবসরকালীন বর্ধিত ভাতা পাবেন, তবে বাদ যাবেন অবৈধ রাষ্ট্রপতিরা।

সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এই সুবিধা পাবেন না। এছাড়াও অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারীদের নাম এই তালিকা থেকে বাদ যাবে।

অবসরে যাওয়া রাষ্ট্রপতিদের ভাতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গত (৯ নভেম্বর) সংসদের অষ্টম অধিবেশনে ‘রাষ্ট্রপতির অবসরভাতা, আনুতোষিক ও অন্যান্য সুবিধা আইন-২০১৫’ নামে নতুন একটি বিল সংসদে উত্থাপিত হয়।

প্রস্তাবিত আইনের বিধান অনুযায়ী বর্তমান রাষ্ট্রপতি অবসরে গেলে ৪৫ হাজার ৯০০ টাকা ভাতাসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাবেন। তবে, সর্বোচ্চ আদালত ঘোষিত অবৈধ রাষ্ট্রপতিরা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।

বিলটি উত্থাপন করেন সংসদ কার্যে দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। পরে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বিলটি অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব করলে সর্বসম্মতিক্রমে তা গৃহিত  হয়। কমিটিকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়। কমিটি বিলটি নিরীক্ষা করে পাসের জন্য বিবেচনায় রেখেছে।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) শুরু হওয়া দশম জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশনেই বিলটি পাস হতে পারে বলে জানা গেছে জাতীয় সংসদের আইন শাখা থেকে। এর আগে, গত ৩ আগস্ট মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিলটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

উত্থাপিত বিলে রাষ্ট্রপতির পেনশন ভাতা ধরা হয়েছে মূল বেতনের ৭৫ শতাংশ। বর্তমান রাষ্ট্রপতির ৬১ হাজার ২০০ টাকা বেতন হিসেবে অবসর ভাতা হয় ৪৫ হাজার ৯০০ টাকা। আনুতোষিকের পরিমাণ এক বছরের জন্য প্রদেয় অবসরভাতা তত গুণ হবে, যত বছর কোনো ব্যক্তি রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। আর অন্যান্য সুযোগ সুবিধার ক্ষেত্রে একজন ব্যক্তিগত সহকারী ও একজন অ্যাটেন্ডেন্ট এবং দাপ্তরিক ব্যয় সুবিধা পাবেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

 

উপরে