আপডেট : ১৬ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৫:০৩

কারাগারে মোবাইল সুবিধা পাচ্ছেন বন্দীরা

অনলাইন ডেস্ক
কারাগারে মোবাইল সুবিধা পাচ্ছেন বন্দীরা

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলার সুবিধা পেতে যাচ্ছেন কারাবন্দীরা। চলতি বছর থেকেই বন্দীরা এই সুবিধা পাবেন।

হাজতিরা মাসে দুইবার পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন। আর সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা এ সুযোগ পাবেন মাসে একবার। এ সংক্রান্ত একটি নীতিমালা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে বলে জানিয়েছে কারা সদর দপ্তর।

সেইসঙ্গে কারাগার আধুনিকায়নে নতুন পদ সৃষ্টি, নতুন কারাগার তৈরি, মনোবিজ্ঞানী নিয়োগসহ নেয়া হয়েছে বেশ কিছু পদক্ষেপ।

আগামী ২০-২৬ জানুয়ারি কারাসপ্তাহ পালন করবে কারা-অধিদপ্তর।

শনিবার এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কারা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক কর্নেল ফজলুল কবির এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, কারবন্দীরা মোবাইলে পরিবারের লোকদের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন। এজন্য কারাগারে ঢোকার সময় কারাকর্তৃপক্ষকে পরিবারের দুটি মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে। পরিবার থেকে বা বাইরে থেকে কারাগারের নম্বরে কেউ ফোন দিতে পারবেন না। তবে এসএমএস করতে পারবেন, সেই এসএমএসের তথ্য কারাবন্দীর কাছে পৌঁছানো হবে। সর্বোচ্চ পনেরো মিনিট কথা বলতে পারবেন তারা।

তবে শীর্ষ সন্ত্রাসী ও জঙ্গিরা কথা বলার এই সুযোগ পাবে না। তবে বিশেষ দরকার হলে গোয়েন্দাদের উপস্থিতিতে তাদের কথা বলতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ‘বন্দীদের সব কলই রেকর্ড করা হবে। পরবর্তীতে সেই কথাগুলো অ্যানালাইসিস করা হবে।’

মোবাইলে কথা বলার এ সুযোগের অপব্যবহার রোধে থাকবে আধুনিক প্রযুক্তিগত ব্যবস্থা। প্রাথমিকভাবে একুশটি কেন্দ্রীয় কারাগারে এ সুবিধা দেয়া হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে