আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৫ ২২:১০

ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে: সিইসি

বিডিটাইমস ডেস্ক
ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে: সিইসি

প্রথমবারের মতো মেয়র পদে দলীয়ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় ভোটাদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল। এই নির্বাচনে যাতে কোনো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় সে জন্য ইসি সতর্ক ছিল। কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সকলের সহযোগিতায় ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দিন আহমদ। 

বুধবার রাত ৮টায় নির্বাচন কমিশনে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। তবে কিছু কিছু কেন্দ্রে অনিয়মের কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, সারা দেশে ২৩৪টি পৌর নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে শেষ হয়েছে। বাংলাদেশে এবারই প্রথম পৌর নির্বাচন রাজনীতিকভাবে অনুষ্ঠিত হল। যে কারণে ভোটারদের মধ্যে নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ ছিল। ২৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৩৩টি কেন্দ্রে ভোট সম্পূর্ণ হয়েছে।

এর মধ্যে একটি কেন্দ্রের ভোট বাতিল করা হয়েছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল কিছু অভিযোগ দায়ের করেছে। আমরা সেগুলো অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে আমলে নিয়ে কিছু ব্যবস্থা নিয়েছি। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণে সহায়তার জন্য ভোটার, রাজনৈতিক দল, সকল প্রার্থী, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

সিইসি রকিবউদ্দীন জানান, এবারের নির্বাচন নিয়ে শুরু থেকেই নির্বাচন কমিশনার সতর্ক ছিল। সারা দেশে ৫ হাজার ৫৫৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ৫০টি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে।

কতো শতাংশ ভোট পড়তে পারে সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, আজ শেষরাত নাগাদ আমরা সব পেয়ে যাবো। এখনই বলা যাচ্ছে না। তিনি বলেন, জাল ভোটের কারণে কয়েকজনকে শাস্তি দেয়া হয়েছে। জেল দেয়া হয়েছে। এটা অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবিলা করবো।

পৌর নির্বাচনে ইসি অসহায় বিএনপির এমন অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে সিইসি বলেন, এটা তো আপনারা প্রথম থেকেই বলে আসছেন। সবার সহযোগিতায় এমন একটি মহাযজ্ঞ হয়। এটা অসহায়ত্বের বিষয় নয়। আমাদের দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি এখনও বদলে যায়নি। প্রত্যেকটি বিষয়ের সমাধান আছে। কোনো বিষয়ে চাইলে প্রতিকার চাইতে পারেন। সর্বোচ্চ আদালত পর্যন্ত এ ব্যাপারে যাওয়া যায়। তবুও আমরা একে অন্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে যাই। এটি অসুস্থ ট্র্যাডিশন। এই পরিস্থিতির মধ্যে আমরা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে কাজ করেছি। আমরা রিটার্নিং কর্মকর্তা পর্যন্ত বদল করেছি। আমরা চেষ্টার ত্রুটি করেনি, করবোও না।

এই নির্বাচন নিয়ে ইসি সন্তুষ্ট কি না এর জাবাবে তিনি বলেন, সন্তুষ্ট অসন্তুষ্ট আপেক্ষিক বিষয়। এটা আমাদের কাজ, আমরা করে যাবো। আমরা সুষ্ঠুভাবে কাজ করে যাবো। পরীক্ষার্থী কখনও নিজের খাতায় নম্বর দেয় না। সেটা আপনার দেবেন। জনগণ দিচ্ছে। আগের তুলনায় এই নির্বাচনে সহিংসতা অনেক কম হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম/

উপরে