আপডেট : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১৪:২৮

থার্টি ফার্স্টে বার-ক্লাব বন্ধ, বৈধ অস্ত্র বহনেও নিষেধাজ্ঞা

বিডিটাইমস ডেস্ক
থার্টি ফার্স্টে বার-ক্লাব বন্ধ, বৈধ অস্ত্র বহনেও নিষেধাজ্ঞা

থার্টি ফাস্ট নাইট উপলক্ষে সারা দেশের সব বার, ক্লাব, রেস্তোরা, হোটেল ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে ১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। এদিকে বৈধ অস্ত্র বহনেও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে পুলিশ।

সোমবার আলাদা দুটি সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে মহাপরিচালক খন্দকার রাকিবুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে ক্লাব রেস্তোরার সঙ্গে ডিজে পার্টিও আওতাভূক্ত থাকবে বলে জানান। 

এদিকে ৩১ ডিসেম্বর রাত ৮টা থেকে পরদিন ভোর ৫টা পর্যন্ত সব ধরনের লাইসেন্স করা আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ।
ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকার পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, “রাজধানীর কোনো সড়কের মোড়, ফ্লাইওভার বা রাস্তায় কোনো ধরনের জমায়েত বা উৎসবের আয়োজন করা যাবে না।”

হাতিরঝিলের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “সন্ধ্যা ৬টার পর হাতিরঝিল এলাকায় কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।” ‍

গুলশান, বারিধারা, বনানী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার বাসিন্দাদেরও রাত ৮টার মধ্যে বাড়ি ফিরতে অনুরোধ করেছে মহানগর পুলিশ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ধ্যা ৬টা এবং গুলশান, বারিধারা, বনানীতে রাত ৮টার পর বাইরের কোনো ব্যক্তি বা যানবাহনকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

পুলিশ বলছে, নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে গিয়ে কোথাও আতশবাজি বা পটকা ফোটানো যাবে না। উন্মুক্ত স্থানে নাচ-গান- আনন্দ করাও মানা।

পুলিশ কমিশনার জানান, মাদকের বিষয়েও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নজরদারি থাকবে। রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় বসবে চেকপোস্ট, চলবে টহল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে/একে

উপরে