আপডেট : ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৫ ২০:০৩

বিশ্বের সর্ববৃহৎ সাঁতার শেখার কর্মসূচি বাংলাদেশে

বিডিটাইমস ডেস্ক
বিশ্বের সর্ববৃহৎ সাঁতার শেখার কর্মসূচি বাংলাদেশে

বিশ্বের সর্ববৃহৎ সাঁতার শেখার কর্মসূচি শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে।এ কর্মসূচিতে পাঁচ থেকে ১৭ বছর বয়সী প্রায় চার কোটি শিশুকে সাঁতার শেখানোর লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রণালয়ের জারি করা এক পরিপত্রে বলা হয়, দেশের সব স্কুল ও কলেজ কর্তৃপক্ষকে শিক্ষার্থীদের জন্য সাঁতার শেখার ব্যবস্থা করতে হবে৷

সাঁতার শেখানোর জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে থাকা পুকুর বা জলাশয় ব্যবহার করতে বলেছে মন্ত্রণালয়৷এক্ষেত্রে পুকুর পাওয়া না গেলে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সহায়তা নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে৷

এছাড়া সাঁতার শেখানোর সময় প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ এবং ছেলে ও মেয়েদের জন্য পৃথক সময়সূচি নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে৷

কর্মসূচি বাস্তবায়নে অর্থ ও জনবল দিয়ে সহায়তা করছে ইউনিসেফ। এ ছাড়া বাতাস ঢুকিয়ে ফোলানো যায় এমন বড় সুইমিংপুলও সরবরাহ করছে জাতিসংঘের এই সংস্থাটি।

ইউনিসেফ ও কয়েকটি সংস্থার যৌথ উদ্যোগে ‘সুইমসেফ' নামে শিশুদের সাঁতার শেখানোর একটি প্রকল্প চলছে বাংলাদেশে৷ এর আওতায় ২০০৬ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ শিশু এই প্রকল্পে অংশ নিয়েছে বলে জানা গেছে৷

ইউনিসেফের হিসাব অনুযায়ী, বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় ১৮ হাজার শিশু পানিতে ডুবে মারা যায়। সে হিসাবে প্রতিদিন গড়ে প্রাণ হারাচ্ছে ৪৯ জন শিশু। অর্থাৎ প্রতি ৩০ মিনিটে মৃত্যু হয় একজনের। দেশে এক থেকে ১৭ বছর বয়সি শিশুমৃত্যুর অন্যতম বড় কারণ পানিতে ডুবে মৃত্যু।

উপরে