আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২০:২১

বরেলি কি বরফি; ঝিরঝিরে বর্ষায় রোম্যান্টিক কমেডি

অনলাইন ডেস্ক
বরেলি কি বরফি; ঝিরঝিরে বর্ষায় রোম্যান্টিক কমেডি

উত্তর প্রদেশের ছোট শহর বরেলি। সেই শহরেই থাকে বিট্টি। আধুনিক, খোলামেলা স্বভাবের মেয়ে। তাঁর বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজতে হয়রান বাবা-মা। একের পর এক সম্বন্ধ ভাঙার পর হতাশ বিট্টির হাতে আসে ‘বরেলি কি বরফি’ নামে একটি বই। লেখকের নাম প্রীতম বিদ্রোহী। নিজের পছন্দের পাত্র খুঁজে পায় বিট্টি। লেখকের ভাবনা তো হুবহু তার মতো। বই প্রকাশকের কাছে হানা দেয় বিট্টি। বই প্রকাশ চিরাগ দুবের ভূমিকায় আয়ুষ্মান খুরানা। নিজের বন্ধুর নামে বইটি লিখেছিলেন আয়ুষ্মানই। কিন্তু কৃতীকে মুখ ফুটে সেটা বলতে পারেননি। প্রথম দর্শনেই বিট্টির প্রেমে পড়ে ‌যায় চিরাগ দুবে। এরপর প্রীতম বিদ্রোহীকে খুঁজে আনতে লখনৌয়ে ‌যায় চিরাগ। প্রীতম বিদ্রোহীর ভূমিকায় রাজকুমার রাও। এখান থেকে শুরু হয় মজা। প্রীতমও কৃতীর প্রেমে পড়ে ‌যায়। ওদিকে আবার আগে থেকে ঘায়েল চিরাগ দুবে। দুলহানিয়া কে নিয়ে ‌যাবে? তা নিয়েই শুরু হয় দুই দিলওয়ালার লড়াই। বিট্টির চরিত্রে অভিনয় করেছেন কৃতী শ্যানন। কৃতীর বাবার চরিত্র পঙ্কজ ত্রিপাঠী। মায়ের চরিত্রে সীমা পাবা। 

ঝিরঝিরে বর্ষায় রোম্যান্টিক কমেডি মন্দ নয়। ছোটখাট ভুলভ্রান্তি থাকলেও দেখে আসতে পারেন। ‌যদি ‌যুগলে ‌যান, তো কথাই নেই।

বরেলি কি বরফি-র চিত্রনাট্য লিখেছেন নীতীশ তিওয়ারি ও শ্রেয়াস জৈন। 

পরিচালক- অশ্বিনী আইয়ার তিওয়ারি

উপরে