আপডেট : ২৯ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:০১

মর্গ থেকে উঠে রাতভর পার্টি করলো লাশ!

আন্তর্জাতিক
মর্গ থেকে উঠে রাতভর পার্টি করলো লাশ!

হাসপাতালের ডাক্তাররা মৃত ঘোষণার পরই মৃতদেহটির ঠাঁই হয় মর্গে। কিন্তু এর পরই ঘটলো অলৌকিক ঘটনা। মর্গের হিমাগার থেকে মরদেহ উঠে যোগ দিল পার্টিতে। বিচিত্র এই ঘটনাটি ঘটেছে রাশিয়ায়।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য মিররের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করতে গিয়ে মাত্রাতিরিক্ত ভদকা পান করেন এক ব্যক্তি। পার্টি চলাকালীনই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তড়িঘড়ি তাকে নিয়ে যাওয়া এক হাসপাতালে। ডাক্তাররা পরীক্ষা করে জানান, মারা গেছেন ওই ব্যক্তি। পরে তার মরদেহ রাখা হয় হিমঘরে।

পুলিশের মুখপাত্র আলেক্সে স্টোয়েভ জানান, স্থানীয় মর্গ সেদিন প্রায় মরদেহে ভর্তি ছিল। এমনকি মর্গের মেঝে ও ফ্রিজাররুমেও ভর্তি ছিল মরদেহ। আর সেখানেই ঘটে এই অলৌকিক ঘটনা। অন্ধকার লাশঘরের ভিতরেই জীবন ফিরে পান ওই ব্যক্তি। কীভাবে এই ঘটনা ঘটে তা নিয়ে এখনও দ্বিধায় চিকিৎসকরা।

তাদের অনুমান, মাত্রাতিরিক্ত অ্যালকোহলের প্রভাবে ব্যক্তির মস্তিষ্কের ক্রিয়া এমনভাবে ব্যাহত হয়েছিল, যাতে তাকে মৃত বলে মনে করা হয়েছিল। সম্ভবত মর্গের ফ্রিজার রুমের ঠাণ্ডাতেই সে সমস্যা মেটে। মস্তিষ্ক স্বাভাবিক হতে শুরু করতেই প্রাণ ফিরে পান তিনি।

কিন্তু মরদেহ থেকে তরতাজা মানুষ হয়ে ওঠার অভিজ্ঞতা কী রকম? জানতে চাইলে জবাবে ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন, অন্ধকারে মধ্যে আছন্ন অবস্থা থেকে উঠে প্রথমে তিনি বুঝেই উঠতে পারছিলেন তিনি ঠিক কোথায় আছেন। ঘোর কাটতে হাতে ঠেকে মানুষের ঠাণ্ডা শরীর। তখনই প্রচণ্ড ভয় পেয়ে যান তিনি। চিৎকার করে মর্গ থেকে বেরিয়ে আসেন।

মর্গের রক্ষীরাও বিস্ময়ে দেখেন, চিৎকার করতে করতে লাশঘর থেকে জীবন্ত হয়ে ছুটছে এক মরদেহ। পুরো ঘটনা জানানো হয় পুলিশকে।

এদিকে মর্গ থেকে জীবন ফিরে পাওয়ার পর তিনি ফিরে যান বন্ধুমহলে। সেখানে তাকে দেখে বন্ধুরা নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। তবে বাস্তব যে কল্পনার থেকেও সত্যি, সে কথাই একটা সময় মেনে নেন তারা। আর তাই ফের শুরু হয় পার্টি। বন্ধুর পুনর্জন্ম সেলিব্রেট করা শুরু হয়। মর্গ থেকে উঠে রাতভর ফের পার্টিতে মেতে ওঠে ঘণ্টাকয়েক আগে ঘোষিত মরদেহ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে