আপডেট : ১১ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৫:২৩

একাদশ শ্রেণির দুই ছাত্রীকে নগ্ন করে তল্লাশি!

আন্তর্জাতিক
একাদশ শ্রেণির দুই ছাত্রীকে নগ্ন করে তল্লাশি!

১ হাজার টাকা চুরির অভিযোগ। আর এর এই অভিযোগের ভিত্তিতেই কিনা একাদশ শ্রেণির দুই ছাত্রীকে নগ্ন করে তল্লাশির অভিযোগ উঠল স্কুলের দুই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। মধ্যপ্রদেশের আলিরাজপুর জেলার একটি সরকারি স্কুলে ঘটা এই ঘটনায় ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য।

জানা গিয়েছে, গত ৮ জানুয়ারি ঘটনাটি ঘটেছে। নিজের ১ হাজার টাকা চুরি যাওয়ার অভিযোগ করে এক পড়ুয়া। তখনই গোটা ক্লাসের সামনেই তাদের তল্লাশি করা হয়। কিন্তু কিছু না পাওয়া যাওয়ায় তাদের দু’জনকে অন্য একটি ঘরে নিয়ে যান ওই দুই শিক্ষিকা। সেখানে দু’জনকে পুরোপুরি নগ্ন করে তল্লাশি চালানো হয়। কিন্তু চুরি যাওয়া টাকা পাওয়া যায়নি।

স্কুল কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানেই ওই ছাত্রীকে নগ্ন করে তল্লাশি করা হয়েছে বলে খবর। তারা টাকা চুরি করেনি, এই মর্মে বারবার শিক্ষিকাদের অনুরোধও করে ছাত্রীরা। কিন্তু ওই শিক্ষিকারা ছাত্রীদের কথায় কোনওরকম কর্ণপাত করেনি।

খবরটি জানতে পেরেই মঙ্গলবার রাতে দুই ছাত্রীর পরিবার জোবাট থানায় অভিযোগ দায়ের করে। সংবাদসংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এক ছাত্রী জানায়, ‘স্কুলে তখন টিফিন পিরিয়ড ছিল। সে সময় আমি এবং আমার বন্ধু ছাড়া আর কেউ ক্লাসরুমে ছিল না। আমরা দু’জনে টিফিন খাচ্ছিলাম। তখনই এক সহপাঠী ক্লাসে আসে। জানায়, তার ব্যাগে ১ হাজার টাকা ছিল, কিন্তু এখন আর নেই। এরপরই সে আমাদের দু’জনের উপর দোষ চাপায়। এরপর দু’জন শিক্ষিকা আসেন ও আমাদের দু’জনের ব্যাগ চেক করেন। কিন্তু কিছু না পেয়ে তাঁরা আমাদের দু’জনকে পাশের একটি ঘরে নিয়ে যান। সেখানে আমাদের নগ্ন হতে বলা হয়। আমরা অনেক কাকুতিমিনতি করি। কিন্তু আমাদের কথা শোনেননি তাঁরা।’

যদিও ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক প্রভু পাওয়ার। তবে পুলিশ পুরো ব্যাপারটিরই তদন্ত করছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে