আপডেট : ১৮ মার্চ, ২০১৬ ১৮:১৭

আমাজনে বিশ্বের সবচেয়ে বড় অজগরের সন্ধান! দেখুন ভিডিওতে..

অনলাইন ডেস্ক
আমাজনে বিশ্বের সবচেয়ে বড় অজগরের সন্ধান! দেখুন ভিডিওতে..

পৃথিবীর ভয়ংকর সাপ হিসেবে অ্যানাকোন্ডার সবার কাছেই পরিচিত।তবে ভয়ংকর সেই অ্যানাকোন্ডার বাসবাস কোথায় তা অনেকেরই অজানা।সম্প্রতি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি ১৭ ফুট দৈর্ঘ্যের বিশ্বের সবচেয়ে বড় অ্যান্ডাকোন্ডার সন্ধান পেয়েছে আমাজন জঙ্গলে।গর্ডন বুকানারের উপস্থাপনায় তিন পর্বের একটি ডকুমেন্টেশনে তুলে ধরা হয় অ্যামাজন এর গভীর জঙ্গল এবং পৃথিবীর দীর্ঘতম অজগর সাপের কিছু প্রমাণ্যচিত্র। ডকুমেন্টেশনটির নাম দেয়া হয়েছে ‘উপজাতি,শিকারী এবং আমি’।

ডকুমেন্টেশনের প্রথম পর্বে দেখানো হয় গর্ডন বুকানার ওয়াওরানি নামের উপজাতিদের সাথে পরিচিত হন। এবং তারা সিদ্ধান্ত নিলেন অজগর শিকার করবেন এবং সেই অজগটি হবে পৃথিবীর সবথেকে বড়।

অজগর হল অ্যামাজন জঙ্গলের সব থেকে বিষাক্ত ও হিংস্র প্রাণী। কিন্তু উপজাতিরা এই হিংস্র প্রাণীদের ভয় পায় না কারণ তারা বিশ্বাস করেন যে তাদের সাথে একধরনের আধ্যাত্মিক শক্তি আছে। এবং তারা অবশ্যই অজগর খুজে পাবেন।

গর্ডান অবশ্য এর সায়েন্টিফিক ব্যাখ্যা দিয়েছেন অন্যভাবে যে, কিছুদিন আগে দক্ষিণ আমেরিকার পশ্চিম উপকূলীয় দেশ ইকুয়েডরের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যে পেট্রোলিয়াম বিস্ফোরণ হয়েছে তার কারনে জঙ্গলে তেল ছড়িয়ে পরে। এই তেলের দূষণের কারনে অজগর অনেক দুর্বল হয়ে পরে।

তারা শিকারে জন্য বেরিয়ে পরলেন এবং ঝোপের মাঝে লুকিয়ে থাকা একটি অজগের সন্ধ্যান পেলেন। তাদের মধ্যে একজন উপজাতি ছিলেন অনেক সাহসী।সে  অজগরটিকে টেনে বেড় করে আনলেন। অজগরটি বাহির করার পর তারা বুঝতে পারলেন যে তারা বিশ্বের সবথেকে বড় অজগরটি শিকার করেছে এবং এটি একটি বিশ্ব রেকড।

এই ডকুমেন্টশটি তৈরি করার সময় গর্ডেনকে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ওয়াওরানি উপজাতি সাথে বসবাস করতে হয়েছে। ওয়াওরানি উপজাতি হলেন জঙ্গলের সব থেকে দক্ষ উপজাতি। গর্ডন বুকানার ‘ওয়াওরানি উপজাতিদের’ কাছ থেকে শিখেছেন কীভাবে জাগুয়ার এবং বড় অজগরের সাথে জঙ্গলে বসবাস করতে হয়। এই ডকুমেন্টেশনে আরো দেখানো হয় অ্যামাজনের নদীর ডলফিন, দ্রুততম জাগুয়ার, বানর ও উপজাতির মহিলারা বনের প্রাণীদের সাথে প্রতিবেশীদের মত কিভাবে বসবাস করেন।

            

উপরে